বিরক্তি। দীর্ঘ দিনের বিরক্তি। একদিন ভাঙল সেই বাঁধ। তারপর আমেরিকার এক ব্যক্তি প্রতিবেশীর বাড়ির উপর যা করলেন তা দেখে বিস্মিত হয়েছেন নেটিজেনরা।

কার্ল ফরেস্ট নামের এক ব্যক্তি নিজের টুইটার হ্যান্ডল থেকে গত মঙ্গলবার আপলোড করেছেন একটি ভিডিয়ো। যা ইতিমধ্যেই ভাইরাল। সেই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, ড্রোন থেকে মাটিতে আতসবাজি ছুড়ছেন এক ব্যক্তি। আর সেই আতসবাজি থেকে বাঁচতে ছুটোছুটি করছেন কার্লের প্রতিবেশীরা।

ওই ভিডিয়ো পোস্ট করে কার্ল লিখেছেন, প্রতিবেশীর বাড়ির তীব্র শব্দের দাপটে দিনের পর দিন ধরে বিরক্ত তিনি। বারবার বলেও শব্দের অত্যাচার থেকে রেহাই মেলেনি তাঁর। তাই এক প্রকার বাধ্য হয়েই তিনি প্রতিবেশীদের ‘শিক্ষা’ দেওয়ার রাস্তা বেছে নিয়েছেন বলে দাবি করেছেন। সে জন্যই ড্রোনের মাধ্যমে আতসবাজি ছুড়েছেন প্রতিবেশীদের উপর।

আরও পড়ুন: পা দিলেই ব্রিজে তৈরি হচ্ছে ‘ফাটল’! তবুও এই ব্রিজ দিয়ে কী করে হেঁটে যাচ্ছেন পথচারীরা?

ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, কার্লের ড্রোনে করে ছোড়া আসতবাজির হাত থেকে বাঁচতে তাঁরা একবার এদিকে যাচ্ছে একবার ওদিকে যাচ্ছেন। আর তাঁদের নড়াচড়া লক্ষ্য করে ক্রমাগত তাঁদের তাড়িয়ে বেড়াচ্ছেন কার্ল।

প্রতিবেশীদের ‘উচিত শিক্ষা’ দেওয়ার জন্য কার্লের প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরা। এমনকি ‘সবক’ শেখানোর উপায়েরও প্রশংসা করেছেন। তবে কেউ কেউ আবার কার্লের শাস্তির এই ধরনের সমালোচনাও করেছেন। তাঁদের বক্তব্য, এই পদ্ধতিতে বড় সড় ক্ষতি হতে পারত। এমনকি যে রকম যুদ্ধের ভঙ্গিতে বাজি ছোড়া হয়েছে তাতে আগুন ধরতেও পারত বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তাঁরা। 

আরও পড়ুন: বিমানে যাওয়ার পথ ভেবে লাগেজ বেল্টে উঠে পড়লেন মহিলা! তার পর?