• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

৮১তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

yoga
চেয়ার যোগ- পশ্চিমোত্তানাসন—গ্রাফিক:শৌভিক দেবনাথ

চেয়ার যোগ- পশ্চিমোত্তানাসন

মূলত মাটিতে বসে সামনের দিকে ঝুঁকে পশ্চিমোত্তানাসন করা হয়। কিন্তু অনেকের পক্ষেই মাটিতে বসে সামনে ঝোঁকা সম্ভব হয় না। তাঁদের সুবিধার্থেই ভঙ্গিমা কিছুটা বদলে চেয়ার যোগা পশ্চিমোত্তানাসনের ভাবনা। সামনে ঝুঁকে এই আসন অভ্যাস করলে শিরদাঁড়া ও কাঁধ টানটান হয়। নিয়মিত অভ্যাস করলে মাথা ঠান্ডা হয় ও অল্পস্বল্প ডিপ্রেশন কমাতে সাহায্য করে।

কী ভাবে করব

·       মাটিতে পা চেপে রেখে শিরদাঁড়া সোজা করে চেয়ারে বসুন। মাথা ও ঘাড় সোজা থাকবে। চেয়ারে হেলান দেবেন না। দুই হাত আলগা করে রাখুন কোলের ওপর।

·       এ বারে দুই পা সামনের দিকে সোজা করে বাড়িয়ে দিন। গোড়ালি থাকুক মাটিতে। এই অবস্থানে হাঁটু জোড়া একটু বেঁকে যাবে।

·       যদি গোড়ালির ওপর পা সোজা করে রাখতে অসুবিধে হয়, মাটিতে পায়ের পাতা ঠেকিয়েও রাখা যেতে পারে। দুই হাত রাখুন ঊরুর ওপর। এ বারে ধীরে ধীরে শ্বাস নিন। এটিই আসনের প্রারম্ভিক অবস্থান।

·       এই বার শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে নিতম্ব থেকে সামনের দিকে ঝুঁকে পড়ুন।

·       একই সঙ্গে দুই হাত সোজা করে সামনের দিকে বাড়িয়ে দিন। যতটা পারেন ততটুকুই ঝুঁকবেন। জোর করে কিছু না করাই ভাল। এই অবস্থানে চিবুক বুকে ঠেকাতে হবে। তবে কোনও অবস্থাতেই বেশি স্ট্রেন করবেন না। এই ভাবে থাকুন কয়েক সেকেন্ড।

·       শ্বাস নিতে নিতে প্রারম্ভিক অবস্থানে ফিরে আসুন। এক রাউন্ড সম্পূর্ণ হল। এই ভাবে ৭ রাউন্ড অভ্যাস করতে হবে।

·       অভ্যাস সম্পূর্ণ হলে চেয়ারে হেলান দিয়ে চোখ বন্ধ করে বসে আরাম করুন। অনুভব করুন কেমন বোধ করছেন।

আরও পড়ুন: ৮০তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

মনে রাখবেন

নিতম্ব থেকে নীচে ঝুঁকতে হবে, কোমর থেকে নয়। এই ব্যাপারটা ভুললে চলবে না। তবে যদি হাঁটু, পিঠ বা নিতম্বে কোনও চোট বা বা খুব ব্যথা থাকে, তবে আসনটি অভ্যাস করতে গেলে বিশেষ সাবধানতা নেওয়া উচিত।

আরও পড়ুন: ৭৯তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

কেন করব

যাঁরা মাটিতে বসে আসন করতে অপারগ, তাঁদের জন্য চেয়ার যোগ পশ্চিমোত্তানাসন অত্যন্ত উপযোগী। এই আসনটি নিয়মিত অভ্যাস করলে ঘাড় থেকে কোমরের নীচ পর্যন্ত পুরো মেরুদণ্ড টানটান হয়ে উদ্দীপিত হয়। রক্ত চলাচল বাড়ে বলে শিরদাঁড়া সংলগ্ন যাবতীয় পেশী টানটান ও সুস্থ থাকে। এর ফলে দৈনন্দিন কাজকর্মে বাড়তি এনার্জি পাওয়া যায়। নিয়ম করে অভ্যাস করলে স্নায়ু স্থিতিশীল থাকে, মন ভাল হয়, মানসিক চাপ কমে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন