Advertisement
০৩ ডিসেম্বর ২০২২
YOGA

৭১তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

লকডাউন শুরুর পর থেকে আনলক-১ পর্বেও এমন কিছু ব্যায়ামের হদিশ আমরা প্রতি দিন দিচ্ছি, যা জিম বা যোগাসন ক্লাস শুরু না হলেও বাড়িতে বসেই করা যায়। আজ ৭১তম দিন।লকডাউন শুরুর পর থেকে আনলক-১ পর্বেও এমন কিছু ব্যায়ামের হদিশ আমরা প্রতি দিন দিচ্ছি, যা জিম বা যোগাসন ক্লাস শুরু না হলেও বাড়িতে বসেই করা যায়। আজ ৭১তম দিন।

নেক স্ট্রেচ বা গ্রীবা প্রসারণ। ছবি: শৌভিক দেবনাথ।

নেক স্ট্রেচ বা গ্রীবা প্রসারণ। ছবি: শৌভিক দেবনাথ।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ জুন ২০২০ ১২:২৬
Share: Save:

ছাত্রছাত্রী থেকে অফিস কর্মী কিংবা বরিষ্ঠ নাগরিক সকলেই জীবনের কোনও না কোনও সময় ঘাড়ের ব্যথায় কষ্ট পান। অল্প বয়সিদের ব্যথা কমে গেলেও বয়স্কদের ঘাড়ে ব্যথার কষ্ট অনেক সময় আজীবন বয়ে বেড়াতে হয়। এর হাত থেকে রেহাই পাওয়ার উপায় আমাদের নাগালে আছে। নিয়মিত ঘাড়ের আসন করে ঘাড়, কাঁধ, পিঠ ও মাথার ব্যথা প্রতিরোধ করা যায় অনেকাংশে। গত দু’দিন আমরা গ্রীবা প্রসারণ আসনের দুটি পর্যায় শিখেছি। আজ শিখে নেব তৃতীয় পদ্ধতিটি। পাশাপাশি ঘাড় ঘোরানোর এই আসনটি চেয়ারে বসেই করতে হয়।

Advertisement

কী ভাবে করব

• শিরদাঁড়া সোজা করে চেয়ারে পা ঝুলিয়ে বসুন। পা মাটিতে রাখতে হবে। মাথা ও ঘাড় সোজা রাখুন। দুই হাত থাকবে কোলের উপর। চোখ বন্ধ রাখুন। এটি আসন শুরুর প্রাথমিক অবস্থান।

• এ বার শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে ডান দিকে ঘাড় ঘোরান কাঁধের উপর থেকে যতটা সম্ভব। মাথা সোজা থাকবে। ঘাড় কাত করবেন না। এ বারে শ্বাস নিতে নিতে ঘাড় সামনের দিকে আনুন। আবার শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে ঘাড় ঘোরান বাঁ দিকে।

Advertisement

আরও পড়ুন: ৭০তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

• শ্বাস নিতে নিতে সামনের দিকে শুরুর অবস্থানে ফিরে আসুন।

• এক রাউন্ড সম্পূর্ণ হল। এ রকম ভাবে সাত রাউন্ড অভ্যাস করুন।

• মনে রাখবেনস, শরীর কিন্তু সোজা থাকবে। শুধু ঘাড় ঘোরাবেন।

• ঘাড় ঘোরানোর আসন কয়েক দিন অভ্যাস করার পর চূড়ান্ত অবস্থান কয়েক সেকেন্ড ধরে রাখতে পারলে ভাল হয়।

• আসন অভ্যাস করলে স্টিফ হয়ে যাওয়া ঘাড়ে আরাম বোধ করবেন।

সতর্কতা

সারভাইকাল স্পন্ডিলোসিস, ঘাড়ে ভয়ানক ব্যথা যন্ত্রণা থাকলে বা চোট আঘাত থাকলে এই নেক স্ট্রেচ আসনটি করা চলবে না।

আরও পড়ুন: ৬৯তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

কেন করব?

নানা কাজকর্মের সময় আমাদের ঘাড়ে ও কাঁধে চাপ পড়ে। শোয়া-বসার ভুল ভঙ্গির জন্যও ঘাড়ে ব্যথা হতে পারে। এই কারণে মাথার যন্ত্রণা ও অনিদ্রার সমস্যা দেখা যায়। এই আসনটি অভ্যাস করলে ঘাড় ও সংলগ্ন কাঁধের পেশী নমনীয় হয়ে ঘাড় ঘোরানো সহজ হয়, একই সঙ্গে কাঁধের সচলতা বজায় থাকে। যখন-তখন মাথা ব্যথার কষ্টও থাকে না। দিনের যে কোনও সময় কাজের ফাঁকে সময় বার করে চেয়ারে বসেই আসনটি অভ্যাস করবেন। ঘাড় ও কাঁধের স্টিফনেস কমলে কাজে এনার্জি পাবেন, মন ভাল থাকবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.