বন্ধ্যাত্বের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। তাই চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলেন ২৯ বছরের এক যুবক। সেখানে গিয়ে তিনি জানতে পারলেন, তাঁর দেহে রয়েছে একাধিক মহিলা জননাঙ্গ! তার পরই তাঁকে অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দেন ওই চিকিৎসক। গত মাসে মুম্বইয়ের জেজে হাসপাতালে করা হয় তাঁরঅপারেশন। এখন তিনি সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন মুম্বইয়ের ওই সরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ওই হাসপাতালের ইউরোলজি বিভাগের প্রধান চিকিৎসক ভেঙ্কট গিতে জানিয়েছেন, এই রোগ খুবই বিরল। তাঁর দাবি, এখনও অবধি এমন ২০০টি ঘটনা দেখা গিয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, শরীরের এই সমস্যাকে পারসিসটেন্ট মুলেরিয়ান ডাক্ট সিনড্রোম বলা হয়।

চিকিৎসক গিতে জানিয়েছেন, এমআরআই স্ক্যানিংয়ের মাধ্যমে ওই ব্যক্তির দেহে মহিলা জননাঙ্গের উপস্থিতি ধরা পড়ে। ওই ব্যক্তির দেহে জরায়ু, ফ্যালোপিয়ান টিউব, সারভিক্স ও আংশিক যোনি ছিল। গত ২৬ জুন অপারেশনের মাধ্যমে সেই সব অঙ্গ বাদ দেওয়া হয়েছে। যদিও ওই ব্যক্তি সন্তানের বাবা হতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। কারণ, তাঁর ‘অ্যাজুস্পার্মিয়া’-র সমস্যা রয়েছে। 

আরও পড়ুন: ‘এ ফর অ্যালকোহল, বি ফর বিড়ি’, নাতিদের ইংরাজি বর্ণপরিচয় শেখাচ্ছেন দাদু!

আরও পড়ুন: ২০ লক্ষ ৫০ হাজার লিটার জল নিয়ে চেন্নাই পৌঁছল ট্রেন