মুচমুচে কবিরাজি কাটলেটের সঙ্গে জমে উঠুক চায়ের আড্ডা!

নিজস্ব প্রতিবেদন
মুচমুচে কবিরাজি কাটলেটের সঙ্গে জমে উঠুক চায়ের আড্ডা!

বন্ধুবান্ধব থেকে আত্মীয়-পরিজন, বাড়িতে আনাগোনা লেগে থাকে প্রায়ই। চায়ের আড্ডা তো রয়েইছে, কিন্তু সন্ধ্যের মেনুতে কী রাখবেন তা ভেবেই কি নাজেহাল? নিরামিষ থেকে আমিষ, সব রকম উপাদান দিয়েই বাঙালি স্ন্যাক্স বানাতে ওস্তাদ। তাই রেস্তরাঁর ভরসায় আজ আর বসে নেই তাঁরা।

ভোজনপ্রেমীদের কাছে কাটলেট বড়ই প্রিয়। আর তা যদি হয় কবিরাজি তবে তো কথাই নেই। ভাজাভুজির পর্বে চিকেন বরাবরই তার পছন্দের তালিকায় আছে। তাই ক্যাফেতে গেলে চা অর্ডার করলে ‘টা’ হিসেবে কাটলেটকেই বেছে নিতে চায় মন। কিন্তু দামের কথা মাথায় আসতেই হাত পড়ে কপালে। তখন মন চাইলেও অর্থ দেয় না সঙ্গ।

কিন্তু চিন্তা কিসের? চটজলদি বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন ঘরোয়া কিছু উপকরণ দিয়ে রেস্তরাঁর স্টাইলে চিকেন কবিরাজি কাটলেট। রইল রেসিপির হদিশ।  

চিকেন কবিরাজি কাটলেট: 

 

উপকরণ


কাটলেটের জন্য


চিকেন কিমা: ২৫০ গ্রাম

পেঁয়াজ কুচি: ১টা বড়

আদা বাটা: ১ চামচ

রসুন বাটা: ১ চামচ

কুচনো ধনেপাতা: ৩ টেবিলচামচ

কুচনো কাঁচালঙ্কা: ২-৩টি

গরম মশলারগুঁড়ো: ১ চামচ

গোলমরিচগুঁড়ো: আধ চামচ

নুন: স্বাদমতো

চাট মশলা: আধ চা চামচ

ব্রেড ক্রাম্ব: ২৫০ গ্রাম

 

কভারেজ-এর জন্য


ডিম: ৩টি

কর্নফ্লাওয়ার: ২ টেবিল চামচ

নুন: স্বাদমতো

গোলমরিচগুঁড়ো: ১ টেবিল চামচ


প্রণালী:

একটা বাটিতে চিকেন কিমা, পেঁয়াজকুচি, আদা-রসুনবাটা, কাঁচালঙ্কা, ধনেপাতা, গরম মশলা, চাট মশলা, ব্রেড ক্রাম্ব, নুন, গোলমরিচ মিশিয়ে ভাল করে মেখে ঘণ্টাখানেক ফ্রিজে রেখে দিন। তার পর পছন্দসই আকারে কাটলেট গড়ে নিন। কাটলেটে বিস্কুটগুঁড়ো মাখিয়ে নিন।
অন্য একটি বাটিতে ডিম, গোলমরিচ, কর্নফ্লাওয়ার, নুন আর সামান্য জল দিয়ে ফেটিয়ে নিন।
একটা কড়াইতে ডিপ ফ্রাই করার মতো তেল গরম করুন। এ বার ক্রাম্ব কোটেড কাটলেটগুলোকে ডিমের গোলায় ডুবিয়ে নিয়ে গরম তেলে ছেড়ে দিন। মাঝারি আঁচে দুটো পিঠ সোনালি করে ভাজুন। এ বার ডিমের গোলাটা ধীরে ধীরে কাটলেটের উপর ঢালুন। সঙ্গে সঙ্গে মিশ্রণটায় প্রচুর ফেনা তৈরি হবে, মেঘের মতো ঘোলাটে দেখাবে। ফ্রায়েড এগের ঝুরি দিয়ে কাটলেটটাকে মুড়ে নিন। এটা কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে করে ফেলতে হবে, ঠান্ডা হয়ে গেলে হবে না। গরম গরম পরিবশন করুন সস আর স্যালাডের সঙ্গে।