Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

International Space Station: থরথরিয়ে কেঁপে উঠল মহাকাশ স্টেশন! জোর বেঁচে গেলেন রুশ অভিনেত্রী, পরিচালক

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৬ অক্টোবর ২০২১ ১৬:৪৫
আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন। -ফাইল ছবি।

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন। -ফাইল ছবি।

থরথর করে কেঁপে উঠল আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন। রাশিয়ার মহাকাশযান ‘সয়ুজ এমএস-১৮’-র ধাক্কায়। নিজের কক্ষপথ থেকে মহাকাশ স্টেশন ৪৫ ডিগ্রি কোণে সরে যেতে বাধ্য হল রুশ মহাকাশযানের ধাক্কায়। সেই মহাকাশযানে ছিলেন মহাকাশে প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্রের শুটিং করতে যাওয়া রুশ অভিনেত্রী জুলিয়া পেরেসলিড, পরিচালক ক্লিম শিপেঙ্কো ও মহাকাশচারী অভিনেতা ওলেগ নোভিত্‌স্কি। তবে অল্পের জন্য তাঁরা বেঁচে গিয়েছেন। মহাকাশযানের ভিতরে নিজেরাও আচমকা থরথরিয়ে কেঁপে ওঠার পর।

আমেরিকার হিউস্টনেআন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের মিশন কন্ট্রোল রুম থেকে জানানো হয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে ভারতীয় সময়ে শুক্রবার রাত সওয়া ১০টা নাগাদ। চলচ্চিত্রের শুটিং হয়ে যাওয়ার পর অভিনেতা, অভিনেত্রী ও পরিচালককে নিয়ে মহাকাশ স্টেশন ছেড়ে ওই সময় পৃথিবীর উদ্দেশে রওনা দিতে তৈরি হচ্ছিল রুশ মহাকাশযান সয়ুজ এমএস-১৮। রবিবার সকালেই পৃথিবীতে ফিরে আসার কথা ওই রুশ মহাকাশযানের। রুশ মহাকাশযানটি নামানো হয়েছিল মহাকাশ স্টেশনে রাশিয়ার যে গবেষণাগারটি রয়েছে, সেই ‘নাওকা মডিউল’-এ।

Advertisement

পৃথিবীতে ফিরে আসার লক্ষ্যে রুশ মহাকাশযানটির থ্রাস্টার ইঞ্জিনগুলি পরীক্ষা করে দেখছিলেন রুশ মাহাকাশচারী প্রযুক্তিবিদরা। তখন থ্রাস্টার ইঞ্জিন চালু করতে গিয়েই ঘটে বিপত্তি। সময় শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও বন্ধ করা যায়নি মহাকাশযানের থ্রাস্টার ইঞ্জিনগুলি। তাদের সজোর ধাক্কায় থরথরিয়ে কেঁপে ওঠে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন। সেই ধাক্কা নিজের কক্ষপথ থেকে অন্তত ৪৫ ডিগ্রি কোণে সরিয়েও দেয় মহাকাশ স্টেশনকে।

ঘটনা সম্পর্কে যা বলল হিউস্টনের মিশন কন্ট্রোল রুম। ভিডিয়ো সৌজন্যে- নাসা।

তার পর ৪৫ মিনিটের চেষ্টায় রুশ মহাকাশচারী প্রযুক্তিবিদরা বন্ধ করতে সক্ষম হন মহাকাশযানের থ্রাস্টার ইঞ্জিনগুলি। তাতে মহাকাশ স্টেশনের দুলুনিও বন্ধ হয়।

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের নাওকা মডিউল। এখানেই নেমেছিল রুশ মহাকাশযান ‘সয়ুজ এমএস-১৮’। -ফাইল ছবি।

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের নাওকা মডিউল। এখানেই নেমেছিল রুশ মহাকাশযান ‘সয়ুজ এমএস-১৮’। -ফাইল ছবি।


গত জুলাইয়ে আর একটি রুশ মহাকাশযানের অবতরণের সময় এমন ভাবেই থরথরিয়ে কেঁপে উঠেছিল মহাকাশ স্টেশন। তার পর মহাকাশ স্টেশনের রুশ অংশে আগুন লেগে ধোঁয়া বেরিয়ে আসার ঘটনাও ঘটে গত সেপ্টেম্বরে।

আরও পড়ুন

Advertisement