• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পাক আর্জি নাকচ, ডেভিস কাপ টাই নিরপেক্ষ কেন্দ্রেই

Paes
কিংবদন্তি: ডাবলসে ভারতের ভরসা সেই লিয়েন্ডার। ফাইল চিত্র

Advertisement

পাকিস্তানের আবেদন নাকচ করে দিল আন্তর্জাতিক টেনিস সংস্থা (আইটিএফ)। ভারত বনাম পাকিস্তানের আসন্ন ডেভিস কাপ টাই কাজাখস্তানের রাজধানী নুর সুলতানে হবে বলে জানিয়ে দিল বিশ্ব টেনিসের নিয়ামক সংস্থা।

প্রথমে ইসলামাবাদে হওয়ার কথা থাকলেও পাকিস্তানে নিরাপত্তা নিয়ে আশঙ্কা থাকায় ভারতীয় টেনিস সংস্থা (এআইটিএ) অনুরোধ করেছিল টাই নিরপেক্ষ কেন্দ্রে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হোক।  এর পরে আইটিএফ-এর ডেভিস কাপ কমিটি ৪ নভেম্বর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ২৯-৩০ নভেম্বরের এই টাই নিরপেক্ষ কেন্দ্রে হবে। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে পাল্টা আবেদন করেছিল পাকিস্তান টেনিস সংস্থা (পিটিএফ)। পাকিস্তানের যুক্তি ছিল, ভারতীয় পূণ্যার্থীরা পাকিস্তানে নিরাপত্তা নিয়ে কোনও আশঙ্কা ছাড়াই আসতে পারলে ভারতীয় টেনিস দল কেন ইসলামাবাদে খেলতে পারবে না? কিন্তু ডেভিস কাপ কমিটি তাদের আগের সিদ্ধান্তই বহাল রাখে।

আইটিএফ বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘‘ইসলামাবাদ থেকে টাই সরানোর বিরুদ্ধে পাকিস্তানের আবেদন সোমবার নাকচ করে দিয়েছে স্বাধীন ট্রাইবুনাল। পিটিএফ যেহেতু কোনও নিরপেক্ষ কেন্দ্র বেছে নেয়নি, নিয়ম অনুযায়ী, ডেভিস কাপ কমিটি নুর সুলতানে এই টাই হওয়ার উপরে ভোট দিয়েছে।’’ এখন নুর সুলতানের তাপমাত্রা অত্যন্ত কম থাকায় এই টাই ইন্ডোরে হবে। ভারতের কোচ জিশান আলি বলেছেন, ‘‘ইন্ডোরে খেললে আমাদের খেলোয়াড়দের কোনও সমস্যা নেই। এত সুবিধেই হবে আমাদের। এমন নয় যে আমাদের খেলোয়াড়েরা ঘাসের কোর্টে খেলতে পারে না। তবে হার্ড কোর্টে বেশি স্বচ্ছন্দ। এই সময় ওখানকার আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া কঠিন। আমরা ইন্ডোরে খেললেও শরীরের উপর আবহাওয়ার প্রভাব পড়বে।’’

এআইটিএ আগেই আট সদস্যের দল ঘোষণা করে দিয়েছিল এই টাইয়ের জন্য। দলে ফিরেছেন লিয়েন্ডার পেজ। তবে রোহন বোপান্না চোটের জন্য ছিটকে গিয়েছেন। তাঁর জায়গায় ডাবলস বিশেষজ্ঞ হিসেবে জীবন নেদুনচেজিয়ান জুটি বাঁধতে পারেন লিয়েন্ডারের সঙ্গে। ভারতের কোচ বলেন, ‘‘বিশেষজ্ঞ খেলোয়াড়কে রিজার্ভে রাখার সিদ্ধান্ত একেবারে ঠিক ছিল। বোপান্না খেলতে পারবে না। ওর জায়গায় জীবন দলে এসেছে। কোন পাঁচ জন খেলবে সেটা এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে আমরা নিশ্চিত ভাবে রোহনের অভাব অনুভব করব।’’ তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘‘আমাদের দলে সিঙ্গলস খেলোয়াড়েরাও ডাবলস খেলতে পারে। যেমন রামকুমার রমানাথন। তবে দলে যখন বিশেষজ্ঞ খেলোয়াড় রয়েছে, তখন সিঙ্গলস খেলোয়াড়দের ডাবলসে নামতে হবে না। ডাবলসে আমাদের বাঁ-হাতি ও ডান হাতির জুটি থাকাটা ভাল ব্যাপার (লিয়েন্ডার ও জীবন)। কাগজে-কলমে ভারত এই টাইয়ে বিপক্ষের চেয়ে শক্তিশালী। তবে আমরা পাকিস্তানকে হাল্কা ভাবে নিচ্ছি না।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন