মেরি কম পারেননি। বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে দেশকে সোনা জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন মঞ্জু রানি। কিন্তু, সেই স্বপ্ন সফল হল না। রবিবার ফাইনালে রাশিয়ান বক্সার একতারিনা পাল্টসেভার কাছে ৪-১ হেরে গেলেন ভারতের মেয়ে। প্রথম বার বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে নেমেছিলেন তিনি। ৪৮ কেজি বিভাগ থেকে রুপো জিতে দেশে ফিরছেন মঞ্জু।

টুর্নামেন্ট থেকে সোনা জিততে না পারলেও হৃদয় জিতে নিয়েছেন মঞ্জু। এ দিন ফাইনালে ভারতের একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে বেঁচে ছিলেন হরিয়ানার বক্সার। বাকিরা আগেই ছিটকে গিয়েছিলেন।

মঞ্জু এ দিন রুপো জেতার ফলে বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে ভারত একটি রুপো ও তিনটি ব্রোঞ্জ জিতে অভিযান শেষ করল। এর আগে ২০১১ সালে মেরি কম প্রথম বার বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে নেমে ফাইনালে পৌঁছেছিলেন। মঞ্জুও তাই।

আরও পড়ুন: টাইটানিক পোজে শাস্ত্রী! সোশ্যাল মিডিয়ায় চলল বিদ্রুপ

অনেক ঘাত প্রতিঘাত পেরিয়ে আজ এই জায়গায় পৌঁছেছেন মঞ্জু। আট বছর আগে ক্যানসারে মারা যান তাঁর বাবা ভীমসেন সিংহ। মঞ্জুর তখন মাত্র ১২ বছর বয়স। বাবা চলে যাওয়ায় আর্থিক পরিস্থিতি খারাপ হয়ে যায় মঞ্জুদের। দারিদ্রের বিরুদ্ধে লড়াই করে মঞ্জু রানি উঠে এসেছেন। শনিবার ৪৮ কেজি বিভাগের সেমিফাইনালে তাইল্যান্ডের চুথামাত রকসাতকে ৪-১-এ হারিয়ে পৌঁছেছিলেন ফাইনালে। রবিবার তাঁর স্বপ্নের দৌড় থেমে গেল।

আরও পড়ুন:  বাঁ হাতে অবিশ্বাস্য ক্যাচ ঋদ্ধির, কিরমানির কথা মনে পড়ল গাওস্করের​