লর্ডস টেস্টের পঞ্চম দিনে ছিটকে গেলেন স্টিভ স্মিথ। অ্যাশেজের দ্বিতীয় টেস্টে জোফ্রা আর্চারের বিষাক্ত বাউন্সার আছড়ে স্টিভ স্মিথের ঘাড়ে। আঘাত লাগার সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন স্মিথ। সেই আঘাতের ধাক্কা কাটিয়ে মাঠে ফিরে স্মিথ ৯২ রান করেন।

রবিবার তাঁর চোট পরীক্ষা করা হয়। সেই রিপোর্টে দেখা যায় কনকাশন হয়েছে স্মিথের। এই রিপোর্ট পাওয়ার পরেই আইসিসি-র কাছে অস্ট্রেলিয়া আবেদন করে, স্মিথের পরিবর্ত হিসেবে পঞ্চম দিনে অন্তর্ভুক্ত করা হোক মারনাস ল্যাবুশেনকে। আইসিসি-ও সম্মতি দেয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কন্ট্রোল সম্মতি দেওয়ায় টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম পরিবর্ত ক্রিকেটার হয়ে গেলেন ল্যাবুশেন। তিনি ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং- সবই করতে পারবেন।

আইসিসির নতুন নিয়ম অনুযায়ী, কনকাশন হওয়া ক্রিকেটারের বিকল্প নিতে পারবে দলগুলো। স্মিথেরও যেহেতু কনকাশন হয়েছে, সেই কারণে অস্ট্রেলিয়ার আবেদন মেনে নেওয়া হল।  

আরও পড়ুন: গলে ইতিহাস গড়ে জিতল শ্রীলঙ্কা, পেল ৬০ পয়েন্টও

আরও পড়ুন: স্মিথের আঘাতে লর্ডসে মুহূর্তের জন্য ফিরেছিল হিউজ-আতঙ্ক  

 

রবিবার ফের স্মিথের পরীক্ষা করা হয়।  পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে আগের থেকেও স্মিথের অবস্থার অবনতি হয়েছে। দলের চিকিৎসক  এর পরেই স্মিথকে ম্যাচ থেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তৃতীয় টেস্টে কি খেলতে পারবেন স্মিথ? এই প্রশ্নই এখন উঠছে। এখনও পর্যন্ত অবশ্য স্মিথের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তাঁর অবস্থা খতিয়ে দেখা হবে আগামী কয়েকদিনে। সব দিক বিচার করে তবেই তৃতীয় টেস্টে  স্মিথের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করা হবে।