Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
WTC

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের দিন ঘোষণা আইসিসির, লড়াইয়ে তিন দল

টেস্টে সেরা দল বেছে নিতে আইসিসি নতুন এক প্রতিযোগিতা শুরু করেছে। গত বছর এই প্রতিযোগিতার ফাইনালে খেলেছিল ভারত এবং নিউ জ়িল্যান্ড। সাদাম্পটনে সেই ফাইনালে হেরে যায় ভারত। টেস্টে সেরা হয় নিউ জ়িল্যান্ড।

Virat Kohli and Rohit Sharma

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার সুযোগ রয়েছে বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মাদের। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৫:১৬
Share: Save:

এই বছরই হবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল। ৭ জুন ওভালে হবে সেই ম্যাচ। ৫ দিনের লড়াই চলবে ইংল্যান্ডের মাঠে। কিন্তু কোন দুই দল খেলবে তা এখনও স্পষ্ট নয়। লড়াইয়ে রয়েছে ভারত, অস্ট্রেলিয়া এবং শ্রীলঙ্কা।

টেস্টে সেরা দল বেছে নিতে আইসিসি নতুন এক প্রতিযোগিতা শুরু করেছে। গত বছর এই প্রতিযোগিতার ফাইনালে খেলেছিল ভারত এবং নিউ জ়িল্যান্ড। সাদাম্পটনে সেই ফাইনালে হেরে যায় ভারত। টেস্টে সেরা হয় নিউ জ়িল্যান্ড। এ বছর যদিও ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে নেই কিউইরা। ভারত এখনও লড়াইয়ে রয়েছে। তাদের সঙ্গে লড়াই অস্ট্রেলিয়া এবং শ্রীলঙ্কার। অস্ট্রেলিয়া এবং ভারতের মধ্যে টেস্ট সিরিজ় শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার থেকে। সেই সিরিজ়ের উপর ফাইনালে ওঠা নির্ভর করছে।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের লিগ তালিকায় শীর্ষে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তাদের ফাইনালে ওঠা এক প্রকার নিশ্চিত। ৭৫.৫৬ শতাংশ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে প্যাট কামিন্সরা। ভারত রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। তাদের রয়েছে ৫৮.৯৩ শতাংশ পয়েন্ট। তৃতীয় স্থানে শ্রীলঙ্কা। ৫৩.৩৩ শতাংশ পয়েন্ট রয়েছে তাদের। ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া একে অপরের বিরুদ্ধে খেলবে। অন্য দিকে শ্রীলঙ্কা খেলবে নিউ জ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে। কিউইদের ঘরের মাঠে খেলবে লঙ্কাবাহিনী। কে লড়াই শ্রীলঙ্কার জন্য বেশ কঠিন। তাই ভারতের সুযোগ অনেকটাই বেশি।

দক্ষিণ আফ্রিকা রয়েছে চতুর্থ স্থানে। তাদের ম্যাচ রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ়ের বিরুদ্ধে। দু’টি করে ম্যাচ খেলবে তারা। ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন, “বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতকে নেতৃত্ব দেওয়া খুবই গর্বের হবে আমার জন্য। জুন মাসে ওভালে ওই ট্রফি তুলতে চাইব আমরা। তার আগে শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়া দলের বিরুদ্ধে খেলতে নামতে হবে আমাদের।”

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী কামিন্স। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক বলেন, “শেষ দু’বছরে আমাদের কাছে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ একটা অনুপ্রেরণা। প্রথম বার আমরা ফাইনাল খেলতে পারিনি। তাই এ বছর সেটা খেলার জন্য মুখিয়ে আছি। ভারত শেষ এক বছরে লাল বলের ক্রিকেটে বড় শক্তি হলেও আমরা আত্মবিশ্বাসী ফাইনাল খেলার ব্যাপারে। আমাদের দলের সকলের জন্য ফাইনালে সুযোগ পাওয়াটা পরিশ্রমের ফল।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE