• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পাত্র আইএএস, পাত্রী আইপিএস, ভালবাসার দিনে অফিসেই বিয়ে সারলেন ওঁরা

couple
ভালবাসার দিনে অফিসেই হল বিয়ের রেজিস্ট্রি। —নিজস্ব চিত্র।

Advertisement

দু’জনেরই কর্মব্যস্ত জীবন। তবু তারই মধ্যে কথা দেওয়া ছিল, ভালবাসার দিন ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে বিয়ে করবেন। কিন্তু বিধি বাম। কাজের ফাঁকে ছুটি পাওয়ার জো নেই যে! কারণ পাত্র আইএএস অফিসার, আর পাত্রী আইপিএস। তাই কাজের জায়গাতেই বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন তাঁরা। নিজের দফতরেই বিয়ে সারলেন দুই অফিসার।

ঘটনা এই বাংলারই উলুবেড়িয়ার। হাওড়ার এই অঞ্চলের মহকুমাশাসক তুষার সিংলা বিয়ে করলেন বিহারের পটনার এএসপি (ট্রেনিং) নভোজিৎ সিমিকে। বিয়ের জায়গা হিসাবে নিজের দফতরকেই বেছে নিলেন তুষার সিংলা। শুক্রবার, ভালবাসার দিনে সকাল ১১টা নাগাদ সেখানেই হল বিয়ের রেজিস্ট্রি। তবে গত কাল রেজিস্ট্রির আগে অবশ্য রাত আড়াইটে নাগাদ স্থানীয় এক কালী মন্দিরে ওঁরা দু’জন মালাবদল সেরে ফেলেছেন। বিয়েটা জাঁকজমকহীন হলেও খুশিমনে পাত্র-পাত্রী জানালেন, রিসেপশনে সকলকে আমন্ত্রণ করবেন।

তুষার এবং নভোজিৎ, দু’জনেই আদতে পঞ্জাবের বাসিন্দা। তবে কাজ সামলাচ্ছেন দেশের দুই রাজ্যে। বাসা বাঁধতে অসুবিধা হবে না? উলুবেড়িয়ার মহকুমাশাসক তুষার বলেন, “২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গের ভোট মিটে গেলে মনের মানুষকে এখানে নিয়ে আসব।”

আরও পড়ুন: দীপঙ্করকে ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে কী উপহার দিলেন দোলন?

আরও পড়ুন: যে দিন চোখে নেশা লেগে যাবে, সে দিনই ভি ডে

আরও পড়ুন: ‘মাথায় একটা বাড়ি পড়েছে, তাতেই এত কথা, এত রাজনীতি!’

কাজের সূত্রেই আলাপ দু’জনের। অবশেষে পরিচয় থেকে পরিণয়। সেখান থেকে সিদ্ধান্ত বিয়ের। কিন্তু, কাজের এত চাপ, যে সময় বার করাই মুশকিল দু’জনের। তাই ভালবাসার দিনে আইএএস তুষার সিংলা নিজের কাজের জায়গাকেই বেছে নিলেন রেজিস্ট্রির জন্য। তাতে অবশ্য কোনও আক্ষেপ নেই দু’জনের!

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন