কেন্দ্রীয় জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি মন্ত্রকের নতুন প্রকল্প ‘জল জীবন প্রকল্প’-এ উপভোক্তাদের এলাকায় পাইপলাইন পাতার জন্য যে-খরচ বরাদ্দ হবে, তার ১০ শতাংশ তাঁদের দিতে হবে। কেন্দ্রীয় সরকারের এই নতুন নীতি রূপায়ণ করতে গিয়ে ফাঁপরে পড়েছে রাজ্য সরকার। কেননা পানীয় জল সরবরাহের ক্ষেত্রে উপভোক্তাদের উপরে কোনও কর বা অন্য কোনও অর্থ ধার্য করতে চায় না তারা।

রাজ্যের জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দফতরের এক আধিকারিক জানান, নতুন প্রকল্পের নিয়ম অনুযায়ী প্রতিটি প্রকল্প রূপায়ণের জন্য কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার সমান সমান অর্থ বরাদ্দ করবে। বাড়িতে জল নেওয়ার জন্য পাইপলাইন পাতা এবং অন্যান্য কাজে যে-অর্থ খরচ হবে, তার ১০ শতাংশ দিতে হবে সংশ্লিষ্ট এলাকার উপভোক্তাদের। ৯০ শতাংশ অর্থ সমপরিমাণে জোগাবে কেন্দ্র ও রাজ্য।

জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দফতরের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র বলেন, ‘‘কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন প্রকল্পে প্রতিটি বাড়িতে জলের সংযোগের বিনিময়ে উপভোক্তাদের থেকে অর্থ নেওয়ার প্রস্তাব রয়েছে। এই ধরনের প্রস্তাব রাজ্য সরকারের নীতি বিরোধী। অথচ কেন্দ্রীয় শর্ত না-মানলে ওই প্রকল্প রূপায়ণ করা যাবে না। বিষয়টি নিয়ে আমরা আলোচনা করছি।’’

বিকল্প ব্যবস্থা কী? 

মন্ত্রী জানান, উপভোক্তাদের প্রদেয় ১০ শতাংশ অর্থ রাজ্য সরকার নিজেরাই দিয়ে দিতে পারে।