Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
police

গায়ে কেরোসিন ঢেলে নবান্নের সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা মূক ও বধিরের, আটক করল পুলিশ

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই যুবকের নাম রাজীব মজুমদার। পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই যুবক চাকরির দাবি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন।

One young man allegedly tried to fire himself by pouring kerosene

ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন পুলিশ আধিকারিকরা। — নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাওড়া শেষ আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৮:৫৮
Share: Save:

নবান্নের সামনে গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন এক যুবক। বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটার আগেই তাঁকে আটক করল পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে ওই যুবককে। রাজীব মজুমদার নামে ওই যুবককে প্রাথমিক ভাবে ভর্তি করানো হয় হাসপাতালে। পরে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় শিবপুর থানায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই যুবকের নাম রাজীব কুমার। পুলিশ তাঁর কাছ থেকে জানতে পেরেছে, ওই যুবক চাকরির দাবি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু অনুমতি না থাকায় তাঁকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি নবান্নে। শিবপুর থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, এর পর ওই যুবক নিজের গায়ে কেরোসিন তেল ঢালেন। কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকর্মীরা তাঁকে ধরে ফেলেন। তাঁকে হাওড়া হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, ওই যুবক মূক এবং বধির।

পুলিশকে রাজীব লিখে জানিয়েছেন, তিনি উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ রবীন্দ্রপল্লির বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি মাকে নিয়ে থাকেন উত্তর ২৪ পরগনার মধ্যমগ্রামে। তাঁর দাবি, খেলাধুলায় ভাল ফল করায় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য তাকে পুরস্কৃত করেছিলেন। দিয়েছিলেন চাকরির আশ্বাসও। তাঁর বক্তব্য, সেই চাকরি তিনি পাননি এখনও। এ নিয়ে তিনি নবান্নে অনেক চিঠি দিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন। চিঠির সদুত্তর না পেয়ে মঙ্গলবার তিনি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে অভিযোগ জানাতে এসেছিলেন। হাসপাতাল থেকে পরে ওই যুবককে নিয়ে যাওয়া হয় শিবপুর থানায়। তাঁর দাবি কতটা সত্যি তা যাচাই করে দেখা হচ্ছে। খবর দেওয়া হয়েছে রাজীবের পরিবারকেও। যদিও বুধবার নবান্নে ছিলেন না মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার পেশ হয় রাজ্য বাজেট। মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন বিধানসভায়। সেখান থেকেই তিনি রওনা দেন জঙ্গলমহলে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

police Nabanna
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE