Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Mahesh

Rathayatra in Mahesh: বন্ধ উৎসব, গড়াচ্ছে না রথের চাকা, তবে নিয়ম মেনেই পুজো মাহেশে

এ বার মাহেশে ভক্ত সমাগম খুবই কম। যাঁরা পুজো দিতে আসছেন তাঁদের লাইন মেনে ঢুকতে হচ্ছে। এক সঙ্গে বেশি ভক্তকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না মন্দিরে।

চলছে পুজো

চলছে পুজো নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শ্রীরামপুর শেষ আপডেট: ১২ জুলাই ২০২১ ১৩:৫৩
Share: Save:

গত বছর করোনা পরিস্থিতিতে রথের চাকা গড়ায়নি হুগলির মাহেশে। দেশের দ্বিতীয় প্রাচীন রথের চাকা এ বারও রাজপথে গড়াবে না। করোনা আবহে জমায়েত এড়াতে সব উৎসব, অনুষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কিন্তু রথের পুজোর সব নিয়ম, রীতি পালন করা হচ্ছে। অন্য বার যেমন সাজো সাজো রব থাকে, এ বার তা নেই।

নিয়ম মেনেই হয়েছে ভোগ নিবেদন

নিয়ম মেনেই হয়েছে ভোগ নিবেদন নিজস্ব চিত্র

মাহেশের জগন্নাথ মন্দির কর্তৃপক্ষ আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, এ বারে স্নানযাত্রা উৎসব মন্দির প্রাঙ্গণে হবে। সেই মতো সামাজিক দূরত্ব মেনে অনুষ্ঠিত হয়েছে স্নানযাত্রা। তার পরে ১৫ দিন বন্ধ ছিল মন্দির। সোমবার রথের দিন জগন্নাথ, বলরাম, সুভদ্রার বিগ্রহ মাসির বাড়ি যাবে না। তার বদলে নারায়ণ শিলা নিয়ে যাওয়া হবে। নিয়ম মেনে বৈদিক মতে পূজা, অর্চনা চলছে সকাল থেকে। সকাল ৯টায় ভোগ নিবেদনের পর গর্ভগৃহ থেকে মন্দিরের চাতালে বের করা হয়েছে জগন্নাথকে। সেখানেই পুজো চলছে। বিকাল ৪টের সময় রথের চারদিকে তিনবার প্রদক্ষিণ করা হবে। তার পর নারায়ণ শিলা নিয়ে যাওয়া হবে মাসির বাড়ি। তার আগে অবশ্য তিন বিগ্রহ মন্দিরের পিছনে ধ্যান ঘরে অস্থায়ী মাসির বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হবে।

গড়াবে না রথের চাকা

গড়াবে না রথের চাকা নিজস্ব চিত্র

সাধক ধ্রুবানন্দ ব্রহ্মচারী যে জগন্নাথ মন্দির ও রথযাত্রার সূচনা করেছিলেন আজ থেকে ৬২৫ বছর আগে, সেখানে এই নিয়ে দ্বিতীয় বছর রথের চাকা ঘুরবে না। শুধু শ্রীরামপুর নয়, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত ভক্তরা আসেন মাহেশে। এ বার অবশ্য ভক্ত সমাগম খুবই কম। যাঁরা পুজো দিতে আসছেন তাঁদের লাইন মেনে ঢুকতে হচ্ছে। এক সঙ্গে বেশি ভক্তকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না মন্দিরে। পুজো দেওয়া হয়ে গেলে যেন তাঁরা মন্দির প্রাঙ্গন ছেড়ে বেরিয়ে যান সেই ঘোষণা চলছে মাইকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Rathayatra Mahesh
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE