রাস্তা ছিল ফাঁকা। তিনি চালাচ্ছিলেন পাবলিক বাস। তাই রাস্তার ধারের দিকে মনোযোগ না দিয়ে তিনিও চলে যেতে পারতেন ঝড়ের গতি বাস চালিয়ে। কিন্তু তা করেননি। বাস থামিয়ে নিজের মানবিক কর্তব্য পালন করেছেন তিনি। তার এই কাজের জন্যই হারিয়ে যাওয়া একটি বাচ্চা ফিরে গেল বাবার কোলে।

আমেরিকার উইসকোসিন প্রদেশের মিলাওকি শহরের রাস্তায় দিয়ে বাস নিয়ে যাচ্ছিলেন ইরিনা ইভিচ। বাস চালাতে চালাতে দূর থেকে তিনি দেখতে পান ফুটপাতে একটি বাচ্চা হেঁটে বেড়াচ্ছে। বাস নিয়ে বাচ্চাটির কাছে চলে আসতেই তিনি দেখতে পান বাচ্চাটি একা। খালি পায়ে এলোমেলোভাবে হেঁটে বেড়াচ্ছে সে।

এরপর আর এক মুহূর্ত নষ্ট করেননি ইরিনা। রাস্তার বাঁ দিকে বাসটিকে দাঁড় করিয়ে সঙ্গে সঙ্গে নেমে আসেন তিনি। ফুটপাতে গিয়ে বাচ্চাটিকে কোলে তুলে নেন। তারপর বাচ্চাটিকে নিয়ে বাসে উঠে পড়েন। বড় কাউকে দেখতে পেয়ে কান্না থামে বাচ্চাটির।

এরপর পুলিশ না আসা পর্যন্ত বাস না চালিয়ে বাচ্চাটিকে নিয়ে নিজের সিটে বসে থাকেন ইরিনা। এক জন বাসযাত্রী নিজের গা থেকেজ্যাকেট খুলে জড়িয়ে দেন বাচ্চাটির গায়ে। তারপর পুলিশ এলে বাচ্চাটিকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: পর্নোগ্রাফি রুখতে ১.৩ লক্ষ অ্যাকাউন্ট ব্লক করল হোয়াটসঅ্যাপ

এই গোটা ঘটনাটি সামনে এসেছে রাস্তায় থাকা সিসিটিভি ও বাসে থাকা ক্যামেরার সৌজন্যে। ভিডিয়োটি ভাইরাল হওয়ার পর বাচ্চাটিকে খুঁজে পেয়েছে তাঁর বাবা। 

আরও পড়ুন: সুপারলাক্সারি এই ইয়াটে রয়েছে একটি বিচও!

 

(সারাবিশ্বের সেরা সব খবরবাংলায় পড়তে চোখ রাখতে পড়ুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)