‘উইক-এন্ড ছুটি কাটানোর জন্য, তাই হোমওয়ার্ক করতে পারব না’, এমন কথা লিখে স্কুলের হোমওয়ার্কের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাল ক্যালিফোর্নিয়ার এক খুদে স্কুলছাত্র। রীতিমতো লম্বা একটি চিঠি লিখে নিজের প্রতিবাদ জানিয়েছে সে।

স্কুলের বাচ্চাদের উপর হোমওয়ার্কের চাপ থাকা উচিত কি উচিত না সেই নিয়ে তর্ক বহু দিনের। হোমওয়ার্কের চাপে বাচ্চাদের শৈশব নষ্ট হয়ে যাচ্ছে, এই অভিযোগে বহু দিন ধরেই স্কুলের বাচ্চাদের উপর থেকে হোমওয়ার্কের চাপ কমানোর জন্য দাবি উঠছে বিভিন্ন মহল। কিন্তু এমন ভাবে প্রতিবাদের কথা মনে ভাবেননি কেউই।

কেন সে স্কুলের দেওয়া হোমওয়ার্ক করে আনেনি, এই নিয়ে স্কুলশিক্ষকের কাছে লিখিত চিঠি দিয়েছে ছোট্ট এডওয়ার্ড ইমানুয়েল কর্টেজ। তার ডাক নাম এডি। নিজের পক্ষে যুক্তি দিয়ে এক পাতার সেই দীর্ঘ চিঠিতে ছোট্ট এডি লিখেছে যে সারা সপ্তাহ জুড়ে স্কুল এবং হোমওয়ার্কের চাপ তাকে সইতে হয়। কিন্তু তার পরের সপ্তাহান্তে এই হোমওয়ার্কের চাপ কিছুতেই মানা যায় না। তাই সপ্তাহান্তে সে কিছুতেই হোমওয়ার্ক করবে না। কারণ অতিরিক্ত হোমওয়ার্কের চাপে তার ‘পাগল পাগল’ লাগতে শুরু করে।

শুধু তাই নয়, বাস্তব জগত থেকেও উদাহরণ টেনে এনেছে এডি। চিঠিতে সে আরও লিখেছে যে, হোমওয়ার্ক কোনও কাজের নয়। এ ছাড়াও বাস্তবজগতে কাজের ক্ষেত্রে শিক্ষকেরা ছাড়া আর কেউই হোমওয়ার্ক দেন না বলেও জানিয়েছে সে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এডির এই চিঠি।

আরও পড়ুন: লটারি পাওয়ার খবর লুকোতে মুখোশ পরে এলেন এই ব্যক্তি

আরও পড়ুন: আত্মরক্ষার্থে ভারতের যে কোনও পদক্ষেপকে পূর্ণ সমর্থন করা হবে, জানিয়ে দিল আমেরিকা