• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মাসুদের মৃত্যুর কথা অস্বীকার করছে পাকিস্তান, নতুন দাবি সংবাদমাধ্যমে

Masood Azhar
মাসুদ আজহার জীবিত রয়েছে বলে দাবি পাকিস্তানের এক শীর্ষ আধিকারিকের।—ছবি এএফপি।

মাসুদ আজহার জীবিত রয়েছে। এমনটাই দাবি পাকিস্তানের এক শীর্ষ আধিকারিকের। যদিও রবিবার রাত পর্যন্ত এ নিয়ে কোনও সরকারি বিবৃতি দেয়নি পাক সরকার। জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের প্রধান মাসুদ আজহারের মৃত্যুর জল্পনার মাঝে এমন দাবি করল তবে গাল্ফ নিউজ-এর একটি রিপোর্ট।

গাল্ফ নিউজ-এ প্রকাশিত ওই রিপোর্ট অনুযায়ী, পাকিস্তানের ওই শীর্ষ আধিকারিক মাসুদের মৃত্যুর খবর অস্বীকার করেছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই পাক আধিকারিকের দাবি, “আমি কেবলমাত্র এটাই বলতে পারি মিডিয়াতে মাসুদ আজহারের মৃত্যু সংক্রান্ত যে সমস্ত খবর প্রকাশিত হচ্ছে, তা সত্যি নয়।” দুবাইয়ে গাল্ফ নিউজকে তিনি এ কথা জানিয়েছেন বলে দাবি ওই সংবাদমাধ্যমের।

ভারতেও ইন্ডিয়া টুডে-র রিপোর্টে দাবি, মাসুদের পরিবারের সদস্যরা জঙ্গি প্রধানের মৃত্যুর খবর অস্বীকার করেছেন। তাঁদের আরও দাবি, মাসুদ দিব্যি বেঁচে রয়েছে।

রবিবার থেকেই পাক মদতেপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের প্রধান মাসুদের মৃত্যুর খবর নিয়ে তীব্র জল্পনা শুরু হয়। ভারতে তো বটেই,  পাকিস্তানের বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে এই খবর নিয়ে একাধিক ফেসবুক ও টুইটার পোস্ট দেখা যায়। তাতে দাবি করা হয়, ওই জঙ্গি নেতা আর জীবিত নেই।

আরও পড়ুন: ভারতীয় ভেবে পাকিস্তানি পাইলটকেই পিটিয়ে খুন পাক অধিকৃত কাশ্মীরে!

সংবাদ সংস্থা আইএএনএস তাদের রিপোর্টেও সোশ্যাল মিডিয়াতে মাসুদ আজহারের মৃত্যু নিয়ে জল্পনার কথা উল্লেখ করে। মাসুদের মৃত্যুর খবর নিয়ে জল্পনা শুরু হয় এ দেশের একাধিক টেলিভিশন চ্যানেলেও। তবে কোনও রিপোর্টেই সেই দাবির সমর্থনে তথ্য প্রকাশ করেনি। এমনকি পাক পাক সংবাদমাধ্যমে এ বিষয়ে কোনও খবরের উল্লেখ করা হয়নি। তা সত্ত্বেও মাসুদের মৃত্যুর খবর নিয়ে দিনভর জল্পনা চলতেই থাকে। ভারতীর গোয়েন্দাদের একাংশের আশঙ্কা, এ ক্ষেত্রে পাক গোয়েন্দাদের একাংশের হাত থাকতে পারে। তাঁরাই পরিকল্পিত ভাবে মাসুদের মৃত্যুসংবাদ ছড়ানোর চেষ্টা করছেন।

আরও পড়ুন: বালাকোটে প্রত্যাঘাত নিয়ে মাসুদের ভাইয়ের ‘নতুন অডিয়ো’, উঠছে নানা প্রশ্ন

দিন কয়েক আগেই অবশ্য মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে  পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি জানিয়েছিলেন যে, মাসুদ আজহার পাকিস্তানেই রয়েছে। তবে মাসুদ যে গুরুতর অসুস্থ এবং বাড়ির বাইরে বেরোতে পারছে না, তা-ও উল্লেখ করেছিলেন তিনি।

পুলওয়ামা হামলার পরে ভারতীয় গোয়েন্দাদের একাংশ দাবি ছিল, দীর্ঘ দিন ধরেই কিডনির অসুখে ভুগছে  মাসুদ এবং সে কার্যত শয্যাশায়ী। এ দেশের একটি গোয়েন্দা সংস্থার খবর, দীর্ঘ দিন ধরে পাক সেনা হাসপাতালে ডায়ালিসিস চলছিল ওই জঙ্গি নেতার। তবে কয়েকটি  টেলিভিশন চ্যানেল দাবি করেছে, শনিবারই মৃত্যু হয়েছে মাসুদের। যদিও প্রায় ষাট বছর বয়সি মাসুদের মৃত্যু নিয়ে ভারতীয় গোয়েন্দারা এখনও পর্যন্ত কোনও সুনির্দিষ্ট তথ্য দেননি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন