রক্ত পরিশুদ্ধ রাখা সুস্থ থাকার অন্যতম চাবিকাঠি। রক্ত যত দূষণ এড়াতে পারবে শরীরও অসুখ থেকে ততই দূরে থাকবে। হৃদরোগ, কিডনির সমস্যা থেকে ক্যানসারের মতো অসুখেরও অন্যতম কারণ রক্তে দূষণ।

‘‘রক্তকে পরিশুদ্ধ রাখা যায় জীবনশৈলী বদলালে। রোজকার অভ্যাসে কিছুটা রদবদল আনলেই দূষণের হাত থেকে বাঁচেরক্ত। রক্তে অক্সিজেন পরিবহণের ক্ষমতা ঠিক রাখার জন্যই তা নিয়ে সচেতনতা প্রয়োজন।” জানালেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ সুবর্ণ গোস্বামী।

ঠিক কী কী কারণে রক্ত দূষিত হয় এবং সমস্যার পথকে প্রশস্ত করে জানেন? সচেতন হতে গেলে কারণগুলি জেনে রাখাও আবশ্যক। দেখে নিন কোন কোন কারণে রক্ত দূষিত হয়?

আরও পড়ুন: ভ্যালেন্টাইনের দিনে সকলের উপহারের চেয়ে আলাদা হোক আপনারটা, রইল টিপ্‌স

  • ঘন ঘন সিগারেট খান? যত দ্রুত সম্ভব এই অভ্যাস ত্যাগ করুন। নিকোটিনের প্রভাবে শরীরের নানা ক্ষতি তো হয়ই, সঙ্গে ধূমপানের জন্য শরীরের ভিটামিন সি-এর পরিমাণ কমে। অথচ শরীরে রক্ত চলাচলের জন্য এই ভিটামিন সি-এর ভূমিকা বিরাট। ধূমপানের ফলে রক্তে কার্বনমনোক্সাইড মিশে অক্সিজেনের ভারসাম্যও নষ্ট হয়।
  • খাবারের পাতের দিকে বিশেষ নজর দিন। সুস্থ থাকতে নুন-চিনির পরিমাণ তো কমাতেই হবে, সঙ্গে বাদ দিতে হবে অতিরিক্ত ফ্যাট জাতীয় খাবার। শরীরের প্রয়োজনে যেটুকু ফ্যাট প্রয়োজন, তার মাত্রা অনেকটা ছাড়িয়ে গেলে সে সব স্নেহ পদার্থের একাংশ ধমনীর স্তরকে পুরু করে দেয়। রক্তের ঘনত্ব বেড়ে অক্সিজেন পরিবহণকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দেয়।

আরও পড়ুন: ফ্যাট আছে অথচ সুস্থ থাকতে এই সব খাবার পাতে রাখতেই হবে

গ্রাফিক: তিয়াসা দাস।

  • যকৃতকে উদ্দীপ্ত করে বেশি পরিমাণে পাচকরস ক্ষরণ করে মদ্যপান। অতিরিক্ত মদ্যপানের ফলে রক্তকণিকাও জমাট বেঁধে যায়। অক্সিজেন সরবরাহে অসুবিধা তৈরি করে।
  • থাইরয়েড থাকলে সাবধান হোন। এই অসুখে ফ্যাট জাতীয় খাবারের হজমক্ষমতা কমে যায়। ফলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ে।