বিশেষ ২টি ফল আর চিকেন, 'ইমিউনিটি বুস্টিং' এই স্যালাড পাতে রাখুন

বিশেষ ২টি ফল আর চিকেন, 'ইমিউনিটি বুস্টিং' এই স্যালাড পাতে রাখুন

ভিটামিন সি সহ অন্যান্য অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে নানা জীবাণুর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে আনারস। ডায়েটিশিয়ান ইন্দ্রাণী ঘোষের মত, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি_৬, সামান্য পরিমাণে ভিটামিন কে, ম্যাঙ্গানিজ, ম্যাগনেশিয়াম, জিঙ্কে ভরপুর আনারস সপ্তাহে দুতিন দিন খাবারের তালিকায় রাখলে ইমিউন সিস্টেম জোরদার তো হবেই, তার সঙ্গে পেটের গোলমাল কমে হজম ক্ষমতা বাড়বে।

একই সঙ্গে আনারস ও আপেল খেলে কো-মর্বিডিটি অর্থাৎ ওবেসিটি, ডায়াবিটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও হার্টের অসুখ নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে।অনেকেরই আবার ফল না পসন্দ। মুখ বদলানোর পাশাপাশি ইমিউনিটি বাড়াতে আনারসের জুড়ি নেই। ইন্দ্রাণী দেবীর পরামর্শ হবু মা আর আনারসে অ্যালার্জি আছে এমন মানুষ ছাড়া ছাড়া প্রত্যেকেরই এই ফলটি খাওয়া দরকার।

তবে অনেক বাচ্চাই ফল খেতে চায় না। তবে চিকেনে কারও না নেই। আনারস সহ সব রকমের ফল সবজিই খাইয়ে দিতে পারেন অনায়াসে। দেখবেন কেমন চেটেপুটে খাবে। ব্যাকরণ না মানলেও চিকেন হাওয়াইয়ান স্যালাড নিজেদের মত করে বাড়িতে বানিয়ে নেওয়া যায় সহজেই।

উপকরণ

(চারজনের জন্যে)

বোনলেস চিকেন – ২৫০ গ্রাম,

আনারসের টুকরো – ২ কাপ,

আপেলের টুকরো – ১ কাপ,

সেদ্ধ করা গাজর কিউব করে কাটা – ১/২ কাপ,

পেঁয়াজ কুঁচি – ১/২ কাপ,

ফেটানো ফ্রেশ ক্রিম – ১/২ কাপ, (না হলেও চলে)

গ্রেট করা চিজ – ২ কিউব,

লেটুস – বড় পাতা পরিবেশনের জন্যে,

পাতিলেবুর রস – ২ চামচ,

গোলমরিচ – ২ চামচ,

মধু – ৪ চামচ,

জল ঝরানো দই – আধ কাপ,

অলিভ অয়েল – ২ বড় চামচ,

সাজানোর জন্য – ব্ল্যাক অলিভ, কাজু ও আখরোট, ( না হলে ক্ষতি নেই)

প্রণালী: চিকেনে নুন, পাতিলেবুর রস ও গোলমরিচ গুঁড়ো মাখিয়ে সেদ্ধ করে নিন। কিউব করে কেটে সেদ্ধ করলে ভাল হয়, নইলে সুবিধা মতো টুকরো করে নিতে হবে। আনারস, আপেল ও সেদ্ধ করা গাজরের কিউবে মধু ও গোলমরিচ মাখিয়ে রাখুন। দই ভাল করে ফেটিয়ে নিন, সামান্য অলিভ অয়েল ও অল্প নুন দিতে হবে। এবারে একটা বড় পাত্রে চিকেনের কিউবের সঙ্গে পেঁয়াজ কুঁচি ও সামান্য দই দিয়ে নেড়ে ভাল করে মিশিয়ে রাখুন। এর মধ্যে সব ফলের টুকরো দিয়ে চিকেনের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। দই ও অলিভ  অয়েল মেশান। স্যালাড পাত্রে হালকা সেদ্ধ লেটুস পাতা বিছিয়ে ওর উপরে স্যালাড সাজিয়ে দিন। এর ওপর গ্রেট করা চিজ ও ক্রিম ছড়িয়ে ব্ল্যাক অলিভ ও ড্রাই ফ্রুটস সাজিয়ে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন। রাতে গুছিয়ে রাখলে জলখাবারেও চিকেন স্যালাড পরিবেশন করতে পারেন। দারুণ স্বাদু এই স্যালাড পরিবারের সকলেই চেটেপুটে খাবেন।