‘বুদ্ধিহীন অধিনায়কত্ব’, সরফরাজকে তীব্র আক্রমণ শোয়েব আখতারের
Sarfaraz Khan

পাক অধিনায়ক সরফরাজ খানকে হজম করতে হচ্ছে প্রবল সমালোচনা। ছবি: রয়টার্স।

বিশ্বকাপে ভারতের কাছে অসহায় হার মেনে নিতে পারছেন না পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার শোয়েব আখতার। এই পাকিস্তান দলকে ‘মাঝারি মান’-এর বলে উল্লেখ করে রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেছেন, ‘‘ওদের কাছ থেকে বেশি কিছু আশা করবেন না।’’

রবিবার ম্যাঞ্চেস্টারে ক্রিকেটের তিনটি বিভাগেই পরাজিত হয়েছে পাকিস্তান। ভাল ফিল্ডিং করতে পারেননি সরফরাজের ছেলেরা। রোহিত শর্মাকে শুরুতেই রান আউট করতে ব্যর্থ হন তাঁরা। তখনই যদি ‘হিটম্যান’কে ফিরিয়ে দেওয়া যেত, তা হলে পাহাড়প্রমাণ রান হয়তো করতে পারত না ভারত। মহম্মদ আমির বাদে বাকি বোলাররা নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। প্রচুর রান দিয়েছেন পাক বোলাররা। শোয়েব বলছেন, ‘‘২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ভারত যে ভুলগুলো করেছিল, সেই একই ভুল ম্যাঞ্চেস্টারে করল পাকিস্তান।’’

সরফরাজকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে শোয়েব বলছেন, ‘‘সরফরাজ কী ভাবে এতটা বুদ্ধিহীন হতে পারে, তা আমার জানা নেই। সরফরাজ কী ভাবে ভুলে গেল, আমরা রান তাড়া করতে ভাল পারি না। আমাদের শক্তির আসল জায়গা তো বোলিং। সরফরাজ টস জিতে ম্যাচটা অর্ধেক জিতে নিয়েছিল। তার পরে ক্রমাগত চেষ্টা চালিয়ে গেল ম্যাচটা কী ভাবে হারা যায়।’’ সরফরাজের নেতৃত্ব হতাশ করেছে শোয়েবকে। তিনি পাক অধিনায়কের সমালোচনা করে আরও বলেন, ‘‘টস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। পাকিস্তান যদি ২৬০ রানও করত, তা হলেও বোলাররা ভারতকে থামাতে পারত। টস জিতে প্রথমে ব্যাট না করে ভারতকে ব্যাট করতে পাঠাল পাকিস্তান। এই কারণেই আমি মনে করি বুদ্ধিহীন অধিনায়কত্ব করেছে সরফরাজ। অত্যন্ত দুঃখজনক ও হতাশাব্যঞ্জক পারফরম্যান্স পাক অধিনায়কের। আমি ওর মধ্যে ইমরান খানের ছায়া দেখতে চেয়েছিলাম। এখন অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে।’’

আরও পড়ুন: সচিন না রোহিত, কার আপারকাটের ছক্কা সেরা, এই ভিডিয়ো পোস্ট করে জানতে চাইল আইসিসি

আরও পড়ুন: ম্যাঞ্চেস্টারের মার্কশিট, দেখে নিন কত পেলেন বিরাট-রোহিতরা

হাসান আলি রবিবার ৯ ওভারে ৮৪ রান দিয়েছেন। শোয়েব মনে করেন, হাসান আলি টি টোয়েন্টি লিগ এবং পাকিস্তান সুপার লিগ খেলতেই বেশি পছন্দ করেন। দেশের হয়ে খেলতে পছন্দ করেন না। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের ক্রমাগত শর্ট পিচ ডেলিভারি করে গিয়েছেন হাসান আলি। টিম ম্যানেজমেন্ট ও কোচ মিকি আর্থারকেও ছেড়ে কথা বলেননি প্রাক্তন পাক বোলার। শোয়েব বলছেন, ‘‘আমাদের ম্যানেজমেন্ট নির্বোধ। সরফরাজ দশম শ্রেণি পাশ করা কিশোরের মতো আচরণ করেছে। ম্যাচ কী ভাবে জিততে হয়, তা জানেই না। টিম ম্যানেজমেন্টের কথা মেনে চলে ম্যাচগুলো হারছে সরফরাজ।’’

সরফরাজ মানতে চান না বিশ্বকাপ তাঁদের কাছে শেষ। ঘুরে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার করছেন পাক অধিনায়ক। শোয়েব কোনও আশা দেখছেন না। সরফরাজের নেতৃত্বে তিনি প্রবল হতাশ।

ম্যাচের
Live
স্কোর