মহেন্দ্র সিংহ ধোনি অবসর নিতে পারেন, বৃহস্পতিবার এই নিয়ে দিনভর তুমুল জল্পনা ছড়িয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। রাতে যে জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন ধোনির স্ত্রী সাক্ষী। 

ঘটনার সূত্রপাত এ দিন বিরাট কোহালির করা একটি টুইট নিয়ে। যে টুইটে ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে ধোনির সঙ্গে তাঁর ব্যাটিংয়ের একটা ছবি পোস্ট করে কোহালি লেখেন, ‘‘এই ম্যাচটা কখনও ভুলব না। ও আমাকে ফিটনেস টেস্ট নেওয়ার মতো করে দৌড় করিয়েছিল।’’ কোহালি এই টুইট করা মাত্রই জল্পনা ছড়িয়ে যায়, তা হলে কি ধোনি অবসর নিয়ে নিচ্ছেন? সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই মন্তব্য করতে থাকেন, ‘‘বৃহস্পতিবারই অবসর ঘোষণা করতে চলেছে ধোনি। কোহালির টুইটে তারই ইঙ্গিত।’’

জাতীয় নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান এমএসকে প্রসাদ এবং পরে সাক্ষী এই জল্পনা উড়িয়ে দেন। এ দিন দল নির্বাচনী সভার পরে প্রসাদকে প্রশ্ন করা হয় ধোনির অবসর নিয়ে। তিনি বলেন, ‘‘কোথা থেকে এই গুজব রটে, জানি না। আমার কাছে এই নিয়ে কোনও খবর নেই।’’ এর কিছু পরে সাক্ষীর টুইট, ‘‘একেই বলে গুজব।’’

এ দিন আবার বিশ্বনাথন আনন্দ মন্তব্য করেছেন, ধোনির এখন আর কিছু পাওয়ার নেই। ভারতের কিংবদন্তি দাবাড়ু বলেছেন, ‘‘ধোনি জানে ওর পক্ষে কোনটা ঠিক। ও বুঝেই সিদ্ধান্ত নেবে। তবে আমি বলব, ধোনির আর পাওয়ার কিছু নেই। ও যদি এখন অবসরও নেয়, অসাধারণ একটা কেরিয়ার পিছনে রেখে যাবে।’’ ভারতের দল নির্বাচনের দিনেও ধোনি নিয়ে সরগরম থাকল ক্রিকেট মহল।