• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শাহের সফরে কি চমক দল বদলের?

Amit Shah
ফাইল চিত্র।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের এ বারের রাজ্য সফরে কি কোনও বড় ‘চমক’ থাকবে? বিজেপি মহলে শনিবার রাত থেকে এই গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। নিশ্চিত কিছু জানা না-গেলেও বিজেপির অন্দরে গুঞ্জন রাজ্যের এক বা দু’জন মন্ত্রী এবং দু’এক জন বিধায়ক শাহের এই সফরেই পদ্ম শিবিরে যোগ দিতে পারেন। তৃণমূল নেতৃত্ব অবশ্য আগেই বলে দিয়েছেন, দলে ‘বিশ্বাসঘাতক’দের জায়গা নেই। 

শাহের পশ্চিমবঙ্গ সফর শুরু হবে বাঁকুড়া থেকে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাজ্যের সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু, রাজ্য দলের কেন্দ্রীয় সহ পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন, আর এক কেন্দ্রীয় নেতা শিবপ্রকাশ, সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায় প্রমুখ শনিবার শাহের সফরের প্রস্তুতি নিয়ে বৈঠক করেন। তার পরে দিলীপবাবু জানান, দলীয় কর্মসূচিতে শাহের রাজ্যে আসার কথা ছিল আগেই। কিন্তু শারীরিক সমস্যার জন্য আগে তিনি আসতে পারেননি। এ বার তিনি আগামী ৫ নভেম্বর প্রথম সাংগঠনিক বৈঠক করবেন বাঁকুড়ায়। সেখানে বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, বর্ধমান, বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর,হাওড়া এবং হুগলি জেলার নেতৃত্ব, ওই জেলাগুলির মধ্যে থাকা বিধানসভার পর্যবেক্ষকরা এবং সংশ্লিষ্ট রাজ্য নেতারা থাকবেন।

পর দিন ৬ নভেম্বর কলকাতায় ইজেডসিসি-তে শাহের দ্বিতীয় বৈঠক হবে। সেখানে থাকবেন কলকাতা, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, নদিয়া এবং মুর্শিদাবাদ জেলার নেতৃত্ব, বিধানসভার পর্যবেক্ষক এবং রাজ্য নেতারা। এ ছাড়াও সমাজের বিভিন্ন গোষ্ঠী বা সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে বৈঠক করার কথা শাহের।

আরও পড়ুন: ওয়াইসির নজর এ রাজ্যেও, চর্চায় মুসলিম ভোট

আরও পড়ুন: ‘রাজনৈতিক চাপ সামলে কি ঠেকানো যাবে বাজি-দূষণ’

সায়ন্তন জানান, শাহ ৪ নভেম্বর অন্ডাল বিমানবন্দরে নেমে রাতে দুর্গাপুর বা আসানসোলে থাকতে পারেন। পর দিন তিনি বাঁকুড়ায় যেতে পারেন। বাঁকুড়ার রবীন্দ্র ভবনে শাহের বৈঠকের ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছেন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। সায়ন্তন আরও বলেন, ‘‘পশ্চিমবঙ্গে একের পর এক বিজেপি কর্মীর হত্যার ঘটনা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বার বার জানানো হয়েছে। এ বার রাজ্যে এসে সাংগঠনিক বৈঠকের পাশাপাশি সেই পরিস্থিতিও নিজের চোখে দেখে যেতে পারেন অমিত শাহ।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন