• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গরিব কল্যাণে ‘বঞ্চনা’, সরব অভিষেক-অধীর 

raj
রাজভবনের সামনে বিক্ষোভ।

প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান প্রকল্পের আওতা থেকে বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের বাদ দেওয়ায় সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করলেন যুব তৃণমূল সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরী আবার ওই প্রসঙ্গে কেন্দ্রের পাশাপাশি রাজ্য়ের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি চিঠি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। অন্য় দিকে, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের প্রশ্ন, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানের সুবিধা পেতে রাজ্য সরকার কি আদৌ পরিযায়ী শ্রমিকদের তালিকা কেন্দ্রকে পাঠিয়েছিল?

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে অভিষেক সোমবার টুইট করেন, ‘‘বাংলার ১১ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক, যাঁরা সবে বাড়ি ফিরেছেন, আপনি এত নির্লজ্জ ভাবে তাঁদের উপেক্ষা করলেন কেন? বাংলাকে গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান থেকে বাদ রাখা হল কেন? বাংলার মানুষের প্রতি এত উদাসীনতা কেন?’’ পাশাপাশি, কংগ্রেস সাংসদ অধীরবাবু ওই প্রকল্প থেকে বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের বাদ রাখার প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেন রবিবার। এ দিন একই বিষয়ে মুখ্য়মন্ত্রীকে পাঠানো চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘‘আপনি নিজেই বলেছেন, ১০ লক্ষের বেশি পরিযায়ী শ্রমিক লক ডাউনের মধ্যে রাজ্যে ফিরেছেন এবং রাজ্য় সরকার তাঁদের খাওয়াচ্ছে। অথচ এ রাজ্যের একটি জেলাও প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান প্রকল্পের আওতায় আসেনি। পরিযায়ী শ্রমিকরা কী দুর্দশার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন, তা রাজ্যের সকলেই জানেন। সুতরাং, আপনাকে অনুরোধ, ওই প্রকল্পে পশ্চিমবঙ্গকে অন্তর্ভুক্ত করাতে আপনি কেন্দ্রকে চাপ দিন।’’ অধীরবাবু বলেন, ‘‘কেন্দ্র একটা প্রকল্প চালু করল এবং পশ্চিমবঙ্গের কথা ভাবল না। আর রাজ্য়ও সেই প্রকল্পের সুবিধা পেতে সক্রিয় হল না। টাকা তো সরকারি কোষাগারের! কেন্দ্র-রাজ্য়ের টানাপড়েনের জন্য় মানুষ বঞ্চিত হবেন, এটা মেনে নেওয়া যায় না।’’

বিজেপির রাজ্য় সভাপতি দিলীপবাবুর অবশ্য প্রশ্ন, ‘‘যে সব জেলায় ২৫ হাজার বা তার বেশি পরিযায়ী শ্রমিক আছেন, সেগুলির নাম ওই প্রকল্পের জন্য় পাঠানোর নিয়ম আছে। রাজ্য সরকার কি সেই তালিকা কেন্দ্রকে পাঠিয়েছে? সেই তালিকা পাঠিয়ে থাকলে সংবাদমাধ্যমকে দিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ করুক। আমার ধারণা, রাজ্য সরকার তালিকা না পাঠিয়েই ওই অভিযোগ করছে।’’ দিলীপবাবুর আরও দাবি, ‘‘রাজ্যের কাছে ২৫ হাজার পরিযায়ী শ্রমিক-যুক্ত জেলার তালিকাই নেই। তাদের অসহযোগিতা এবং গাফিলতির জন্য মানুষ বঞ্চিত হচ্ছেন।’’

এ রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের দাবিদাওয়া নিয়ে এ দিন থেকে ২৮ জুন পর্যন্ত দাবি সপ্তাহ পালনের ডাক দিয়েছে পরিযায়ী শ্রমিক সমিতি, পশ্চিমবঙ্গ। তাকে সমর্থন জানিয়ে এসইউসি-র রাজ্য সম্পাদক চণ্ডীদাস ভট্টাচার্যও বলেন, ‘‘দেশের প্রায় ১৫ কোটি পরিযায়ী শ্রমিকের জন্য ৫০ হাজার কোটি টাকার প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ রোজগার প্রকল্প একেবারেই অপ্রতুল। এটি নতুন কোনও প্রকল্পও নয়। পুরনো ২৫টি প্রকল্প জুড়ে এটি করা হয়েছে। উপরন্তু পশ্চিমবঙ্গকে এতে বাদ রাখা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ-সহ সব রাজ্যকেই এর আওতায় আনার দাবি আমরা করছি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন