• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন আক্রান্ত চার: মমতা

Mamata Banerjee
ছবি: পিটিআই।

সরকারি পরিসংখ্যানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪ থেকে বেড়ে দাঁড়াল ৩৮। শুক্রবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন চার জন। তিনি বলেন, ‘‘চার জন নতুন আক্রান্ত ধরলে রাজ্যে মোট করোনা পজ়িটিভ অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা হল ৩৮।’’ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কোনও মৃত্যুর কথা নবান্ন জানায়নি।

আইসিএমআর-নাইসেড প্রধান শান্তা দত্ত এ দিন আবার জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত এ রাজ্যের ৫৫০টি নমুনা পরীক্ষা করেছে কেন্দ্রীয় গবেষণা সংস্থা। তার মধ্যে ৪০টি নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজ়িটিভ এসেছে। এই পরিসংখ্যানের মধ্যে এসএসকেএমের সংখ্যা ধরা হয়নি। 

স্বাস্থ্য দফতরের খবর, নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে দিল্লির নিজামুদ্দিনে তবলিগি জামাত ফেরত হলদিয়ার এক যুবক রয়েছেন। তাঁকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। স্বভূমি সংলগ্ন বেসরকারি হাসপাতালে সল্টলেকের পূর্ব থানা এলাকায় বসবাসকারী এক প্রাক্তন পুলিশ কর্তার স্ত্রী করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন। শুক্রবার ওই প্রাক্তন পুলিশ কর্তাকে কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়েছে। বিধাননগর পুরসভার মেয়র পারিষদ (স্বাস্থ্য) প্রণয় রায় জানান, স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে তাঁরা জানতে পেরেছেন যে ক্যানসার আক্রান্ত ওই মহিলার নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজ়িটিভ ধরা পড়েছে। কলকাতার এলগিন রোডের বাসিন্দা ৬৯ বছরের বৃদ্ধ করোনায় আক্রান্ত হয়ে আনন্দপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। বরাহনগরের যে বাসিন্দা আক্রান্ত হয়েছিলেন, তাঁর এক আত্মীয়ের দেহে করোনা পজ়িটিভ ধরা পড়েছে। ৫৮ বছরের সেই প্রৌঢ় এখন বেলেঘাটা আইডিতে।

মুখ্যমন্ত্রী জানান

• কোয়রান্টিন কেন্দ্র: ২০৬টি। ঠাঁই পেয়েছেন মোট ৫১১০ জন। বর্তমান আবাসিক ১৮৯২ জন। ছাড়া পেয়েছেন ৩২১৮ জন।
• কোভিড হাসপাতাল: ৫৯টি। রাজ্য স্তরে চারটি*। জেলা স্তরে ৫৫টি।
• হোম কোয়রান্টিন বা গৃহবন্দি: মোট ৫৪৯৬৫ জন। ছাড়া পেয়েছেন ২৯৩৬ জন। এখন আছেন ৫২০২৯ জন।

* (রাজ্য স্তরের করোনা হাসপাতাল: রাজারহাটের সিএনসিআই, এমআর বাঙুর, বেলেঘাটা আইডি, সল্টলেকের আমরি) 


এ দিন মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, উত্তরবঙ্গের একটি পরিবারের আরও পাঁচ জন করোনা-পজ়িটিভ হয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে, চূড়ান্ত রিপোর্ট এলে তা জানানো হবে। স্বাস্থ্য ভবন সূত্রের খবর, উত্তরবঙ্গে করোনা-আক্রান্ত হয়ে যে মহিলার মৃত্যু হয়েছিল তাঁর সংস্পর্শে আসায় কালিম্পংয়ের ছ’জন বাসিন্দার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট শেষ পর্যন্ত পজ়িটিভই হয়েছে।

ভারতের করোনা কি ব্রিটেনের মতো অতটা শক্তিশালী নয়?

আইডি হাসপাতালের চিকিৎসকদের একাংশ জানিয়েছেন, আক্রান্ত যে সাত জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট বৃহস্পতিবার নেগেটিভ এসেছিল, দ্বিতীয় দফায় এ দিন তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। দ্বিতীয় দফাতেও নমুনার রিপোর্ট নেগেটিভ এলে আজ, শনিবার তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হতে পারে। এ দিন আরও পাঁচ জনের নমুনা নেগেটিভ আসে কি না, তা দেখার জন্য নাইসেডে পাঠানো হয়েছে। এই পাঁচ জনের মধ্যে রয়েছে তেহট্টের ন’মাসের শিশু এবং ১১ বছরের বালক। বাকি তিন জনের মধ্যে এগরা যোগে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের স্ত্রী, বালিগঞ্জের বাসিন্দা দ্বিতীয় আক্রান্তের মা এবং মিশর যোগে দক্ষিণ ২৪ পরগনার এক বাসিন্দা রয়েছেন। 

 

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন