• চন্দ্রপ্রভ ভট্টাচার্য
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

এসএমএসে সক্রিয় হবে রেশন কার্ড

Ration Card
প্রতীকী ছবি।

ভোটের আগে রেশন ব্যবস্থার পরিধি ক্রমশ বাড়ছে। বাড়ানো হচ্ছে সুযোগ-সুবিধাও। কিন্তু তার পরেও নতুন রেশন কার্ড সচল করতে মাসের পর মাস সময় লাগলে তা মূল উদ্দেশ্যকে ধাক্কা দেয় বলে মনে করছে নবান্ন। প্রশাসনিক সূত্রের খবর, সেই কারণেই নতুন রেশন কার্ড পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তা সক্রিয় করার পদ্ধতি চালু করল রাজ্য সরকার।

সূত্রের দাবি, নতুন রেশন কার্ড হাতে পাওয়ার পরে ব্লক স্তরের ফুড ইন্সপেক্টরের কাছে গিয়ে তা সক্রিয় (অ্যাক্টিভ) করতে হয়। তা করতে তিন-চার মাস পর্যন্ত সময় লাগে। সম্প্রতি খাদ্য দফতর জানিয়েছে, কার্ড হাতে পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এসএমএস পরিষেবার মাধ্যমে তা সক্রিয় করতে পারবেন উপভোক্তারা। এসএমএসের মাধ্যমে পাওয়া ওটিপি (ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড) দিয়েই সক্রিয় হবে কার্ড।

প্রশাসনের এক কর্তার কথায়, “চালু পদ্ধতিতে নতুন কার্ড সক্রিয় না-হওয়া পর্যন্ত মাসে একবার করে সর্বোচ্চ তিন মাস খাদ্যশস্য তোলার সাময়িক অনুমতি দেওয়া হয় উপভোক্তাকে। কিন্তু কার্ড সক্রিয় হতে আরও বেশি সময় লাগলে চতুর্থ মাস থেকে সেই অনুমতি আর পাওয়া যায় না। কার্ড থেকেও তা সক্রিয় না-হওয়ার কারণে কেউ খাদ্যশস্য তুলতে না পারলে তা খুব সমস্যার। তাই এ বার কার্ড পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা সক্রিয় করা যাবে।” গোটা রেশন ব্যবস্থাকে অনলাইন পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত করতে কাজ শুরু করেছে দফতর। নিজের ভাগের সামগ্রী বিনা বাধায় পেতে এসএমএস পরিষেবাও চালু হতে চলেছে। অর্থাৎ, রেশন থেকে খাদ্যশস্য সগ্রহের পরেই উপভোক্তার মোবাইলে প্রাপ্তির বার্তা যাবে। ফলে একজনের বরাদ্দ অন্য কেউ তুলতে পারবে না।

প্রশাসনের খবর, মার্চ পর্যন্ত অনুমোদিত ডিজিটাল রেশন কার্ডের সংখ্যা ৯ কোটি ২৬ লক্ষের মতো। আবার পাঁচ লক্ষ এমন উপভোক্তা রয়েছেন, যাঁদের ডিজিটাল কার্ড নেই। তাঁরাও ডিজিটাল কার্ডের জন্য আবেদন করেছেন। আর্জি যথাযথ হলে প্রায় চার লক্ষ নতুন গ্রাহককে ডিজিটাল কার্ডের অনুমতি দেবে রাজ্য। এ রাজ্যের বাসিন্দা পরিযায়ী শ্রমিকদের যাঁরা অন্য রাজ্যে ফিরে যাবেন না, তাঁদের মধ্যেও কেউ রেশন কার্ডের জন্য আবেদন জানালে সরকার বিবেচনা করবে। তবে আগামী বছর জুন পর্যন্ত নিখরচে রেশনের যে সুবিধা সরকার ঘোষণা করেছে, তাতে কার্ড সক্রিয় করার পদ্ধতি ঝক্কিহীন না-করলে চাপ বাড়ত প্রশাসনের।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন