• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

খারাপ ও কম জিনিস দেওয়ার অভিযোগে রেশন ডিলারের বাড়িতে হামলা-আগুন মুর্শিদাবাদে

fie
ডিলারের বাড়িতে ভাঙচুরের পাশাপাশি আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। নিজস্ব চিত্র।

সরকারি নির্ধারিত যতটা জিনিস পাওয়ার কথা, রেশন থেকে তা মিলছিল না। পরিমাণে অনেকটাই কম দেওয়া হচ্ছিল খাদ্যশস্য। শুধু তাই নয়, সেই খাদ্যশস্যের গুণগত মানও খুবই খারাপ। এই অভিযোগে এক রেশন ডিলারের বাড়িতে হামলা চালালেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ওই ডিলারের বাড়িতে ভাঙচুরের পাশাপাশি ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে আগুনও। শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের সালারের পুণশ্রী গ্রামে।

খবর পেয়ে বিশাল পুলিশ বাহিনী পৌঁছয় ঘটনাস্থলে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে তারা। জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, সাসপেন্ড করা হয়েছে অভিযুক্ত ওই ডিলারকে। জেলা প্রশাসনের নির্দেশে আটকও করা হয়েছে তাঁকে।

ঘটনার সূত্রপাত এ দিন সকালে সালারের শিমুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের পুণশ্রী গ্রামে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, গত কয়েক দিন ধরেই স্থানীয় রেশন ডিলার হালিম শেখকে নিয়ে ক্ষোভ তৈরি হচ্ছিল তাঁদের একাংশের মধ্যে। অভিযোগ, ওই রেশন ডিলার লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকেই সরকার নির্ধারিত খাদ্যশস্যের থেকে কম চাল-গম দিচ্ছিলেন। এমনকি আটাও কম পরিমাণে দেওয়া হচ্ছিল। সেই সঙ্গে গ্রামবাসীদের একাংশের অভিযোগ, যতটুকু দেওয়া হচ্ছে তার মানও খুব খারাপ।
পুলিশ সূত্রে খবর, এই ক্ষোভ নিয়েই কয়েকশো গ্রামবাসী এ দিন সকালে হালিম শেখের বাড়ির সামনে জমায়েত করেছিলেন। ক্রমে বিক্ষোভ বাড়তে থাকে। উত্তেজিত জনতা হালিমের কাছে খাদ্যশস্য দাবি করে। এই নিয়ে হালিম এবং তাঁর পরিবারের সঙ্গে গ্রামবাসীদের বচসা শুরু হয়ে যায়। তার মধ্যেই উত্তেজিত জনতার একাংশ ইট ছুড়তে শুরু করে হালিমের বাড়ি লক্ষ্য করে। কয়েক জন আবার বাড়ির মধ্যে ঢুকে মজুত রেশন সামগ্রী লুঠ করার চেষ্টাও করে বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: রেড জ়োন নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য বিরোধ

নাম না করে ধনখড়ের সমালোচনায় সিঙ্ঘভি

ইতিমধ্যে হালিম শেখ পুলিশের কাছে ফোন করে সাহায্য চান। সালার থাকার ওসির নেতৃত্বে বাহিনী পৌঁছয় গ্রামে। কিন্তু প্রথমে বাসিন্দাদের বাধায় ঢুকতে ব্যর্থ হয় তারা। পুলিশকে ঘিরে ধরে শুরু হয় বিক্ষোভ। তত ক্ষণে জনতার একাংশ হালিমের বাড়িতে যথেচ্ছ ভাঙচুর চালিয়ে জিনিসপত্র বাইরে এনে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। ঘেরাও হয়ে থাকা সালার থানার ওসিকে উদ্ধার করতে বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন কান্দির এসডিপিও। উত্তেজিত জনতাকে পুলিশ ছত্রভঙ্গ করে।

তবে জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, ওই রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে বাসিন্দাদের অভিযোগ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তের প্রয়োজনে আপাতত রেশন ডিলারকে সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে জেলা প্রশাসন সূত্রে। পুলিশের এক আধিকারিক বলেন, ‘‘ হালিম শেখকেও আটক করা হয়েছে।” 

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণছবিভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকাকোন দিনকোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন