Advertisement
১৩ জুলাই ২০২৪
Paresh Rawal

মাছ-মন্তব্যে গ্রেফতার নয় পরেশকে! নির্দেশ হাই কোর্টের, তবে ভার্চুয়াল জিজ্ঞাসাবাদে সায়

গুজরাতে বিজেপির হয়ে ভোট চাইতে গিয়ে বাঙালিদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছিলেন অভিনেতা তথা বিজেপির প্রাক্তন সাংসদ পরেশ রাওয়াল। তার পরই পরেশের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অভিযোগ জমা পড়ে।

Paresh Rawal

পরেশ রাওয়ালকে স্বস্তি দিল কলকাতা হাই কোর্ট। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৫:৩৪
Share: Save:

বাঙালির মাছ খাওয়া নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ‘কলকাতা পুলিশের তৎপরতা’র ঘটনায় কলকাতা হাই কোর্টে স্বস্তিতে অভিনেতা তথা প্রাক্তন বিজেপি সাংসদ পরেশ রাওয়াল। বৃহস্পতিবার বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার নির্দেশ, এখনই পরেশকে গ্রেফতার করা যাবে না।

শুনানি-পর্বে বিচারপতি মান্থা বৃহস্পতিবার বলেন, ‘‘পুলিশ তদন্ত জারি রাখবে। তবে পরেশকে গ্রেফতার করতে পারবে না। জিজ্ঞাসাবাদে ভিডিয়ো কনফারেন্সে তিনি উপস্থিত থাকতে পারবেন।’’ প্রসঙ্গত, ‘মেছো মন্তব্যের’ জেরে তালতলা থানায় সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিমের দায়ের করা এফআইআরের ভিত্তিতে পরেশকে তলব করেছিল কলকাতা পুলিশ। এর বিরুদ্ধে ডিসেম্বরের গোড়ায় হাই কোর্টে মামলা করেছিলেন তিনি।

গুজরাতে বিধানসভা ভোটের আগে বিজেপির একটি প্রচারসভায় পরেশ বলেছিলেন, ‘‘মুদ্রাস্ফীতি সহ্য করতে পারবেন গুজরাতের মানুষ। কিন্তু পাশের বাড়িতে যদি রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু কিংবা বাংলাদেশিরা এসে ওঠেন, তখন গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে কী করবেন? বাঙালিদের জন্য মাছ ভাজবেন?’’ এর পর পরেশের ওই মন্তব্য নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক। প্রশ্ন ওঠে, রোহিঙ্গা বা বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের আক্রমণ করতে গিয়ে পরেশ কি খেই হারিয়ে গোটা বাঙালি জাতিকেই অপমান করলেন?

পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে বিজেপিও ওই মন্তব্য থেকে নিঃশব্দে দূরত্ব তৈরি করে। বিপাকে পড়ে প্রাক্তন সাংসদ ক্ষমাও চান। কিন্তু তারই মধ্যেই পরেশের বিরুদ্ধে একাধিক থানায় অভিযোগ জমা পড়ে। সেই গুচ্ছ অভিযোগের একটি করেছিলেন সেলিম। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরেশকে কলকাতায় তলব করেছিল পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE