• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুলিশে করোনা-আক্রান্ত ধাক্কা দিচ্ছে দেড়শোর দরজায়

Corona
প্রতীকী ছবি।

কলকাতা পুলিশের কমব্যাট বাহিনীর আরও ২১ জন সদস্য করোনায় আক্রান্ত হলেন। মঙ্গলবার তাঁদের লালারসের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজ়িটিভ আসে। এর পরেই তাঁদের ডুমুরজলা কোয়রান্টিন কেন্দ্র থেকে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। পাশাপাশি, এ দিন পুলিশ ট্রেনিং স্কুলের আরও ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত কলকাতা পুলিশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪০। তাঁদের মধ্যে ৭০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

লালবাজার সূত্রের খবর, করোনায় চিকিৎসা হচ্ছে না, জনবহুল জায়গায় সুরক্ষা-বর্ম ছাড়াই ডিউটি করানো হচ্ছে— এমন নানা অভিযোগে সম্প্রতি বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন পিটিএসের কমব্যাট বাহিনীর সদস্যেরা। অভিযোগ, সেখানে নিগ্রহ করা হয় বাহিনীর ডিসি-কেও। তার পরেই ঠিক হয়, কমব্যাট-সহ বাকি পুলিশকর্মীদের লালারসের নমুনা পরীক্ষায় পাঠানো হবে। সেই মতো গত সপ্তাহে ওই নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তার রিপোর্টই এ দিন এসেছে।

২১ জন নতুন আক্রান্তকে নিয়ে কমব্যাট বাহিনীর মোট ২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে এই মুহূর্তে হাসপাতালে ভর্তি। আগেই ছাড়া পেয়েছেন বাহিনীর ২২ জন সদস্য। এক পুলিশকর্তা জানান, আক্রান্ত পুলিশকর্মীদের সংস্পর্শে আসা বাকি সদস্যদের চিহ্নিত করে কোয়রান্টিনে পাঠানো হবে। চলতি সপ্তাহেই তাঁদের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

আরও পড়ুন: পণ্যবাহী গাড়ি নিয়ে ফিরল নিষেধাজ্ঞা

করোনা নিয়ে পুলিশকর্মীদের বিক্ষোভের পরেই লালবাজার থেকে প্রতিটি ডিভিশনের ডিসিদের থানা, ট্র্যাফিক গার্ড এবং ব্যাটেলিয়নের ব্যারাক পরিদর্শন করতে বলা হয়েছে। সেই মতো ব্যারাক, ট্র্যাফিক গার্ড এবং থানা পরিদর্শন করে পুলিশকর্মীদের অভাব-অভিযোগ শুনছেন তাঁরা। সূত্রের খবর, পুলিশকর্মীরা মূলত ছুটি না-পাওয়ার অভিযোগ করছেন। একই সঙ্গে নিচুতলার কর্মীরা করোনা মোকাবিলায় ঠিক মতো সুরক্ষা-বর্ম পাচ্ছেন কি না, সেই খোঁজও নিচ্ছেন ডিসি-রা।

আরও পড়ুন: ঘূর্ণিঝড় রুখে দিলেও আগুনের কাছে হার মানল বস্তি

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন