• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সংক্রমণ না-বাড়ে, বার্তা পুলিশকর্তাদের

Kolkata Police
প্রতীকী ছবি

কলকাতা পুলিশের মোট ৩৫ জন কর্মী এবং আধিকারিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে সুস্থ হয়ে ১৫ জন বাড়ি ফিরেছেন। বাকিরা শহরের বিভিন্ন সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সোমবার লালবাজারের এক কর্তা জানান, করোনায় আক্রান্তদের তালিকায় তিনটি থানার আধিকারিক থেকে শুরু করে অফিসার, কনস্টেবল এবং সিভিক ভলান্টিয়ারও রয়েছেন। তবে হাসপাতালে ভর্তি কারও অবস্থা আশঙ্কাজনক নয় বলে তাঁর দাবি।

শুক্রবারই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন কলকাতা পুলিশের গাড়ির এক চালক। তিনি আলিপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। শনিবার তিলজলা থানার এক কনস্টেবল এবং এক সিভিক ভলান্টিয়ার আক্রান্ত হয়ে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর আগে ওই থানারই এক অফিসারের করোনা ধরা পড়ে। বর্তমানে তিনি আলিপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল বলে পুলিশ জানিয়েছে। কলকাতা পুলিশের এক আইপিএস অফিসারের দেহরক্ষীও আক্রান্ত।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া বৌবাজার থানার এক আধিকারিক ও এক অফিসার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন রবিবার। ওই আধিকারিক কাজে যোগ দেওয়ায় তাঁকে স্বাগত জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাহিনীর কয়েক জন সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন। সংক্রমণ যাতে ব্যাপক আকার নিতে না পারে, সে জন্য পুলিশকর্মীদের সব রকম সতর্কতা নিয়ে কাজ করতে বলেছেন পুলিশ কর্তারা। পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা সোমবার এক বার্তায় থানাগুলিকে লকডাউনের মধ্যে নির্দিষ্ট সময়ের পরে যাতে দোকান খোলা না থাকে, তা দেখতে বলেছেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন