ফের কলেজে মাদকচক্রের পর্দা ফাঁস। কলকাতা পুলিশের জালে ধরা পড়ল পাঁচ কলেজ পড়ুয়াও। বৃহস্পতিবার রাতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে, তিন মাদক বিক্রেতা যুবককেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, হোয়াটস্‌অ্যাপ অথবা ফোন করে মাদকের অর্ডার দিতেন ওই পড়ুয়ারা। বরাত মেলার পর নির্দিষ্ট জায়গায় মাদকের হাতবদল হত। কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দারা বেশ কিছু দিন ধরে নজরদারি চালাচ্ছিলেন। অবশেষে ধরা পড়ল মাদক বিক্রেতা তিন যুবক। তাদের জেরা করে জানা গিয়েছে, মাদকের জাল ফের ছড়িয়ে পড়েছে কলেজে কলেজে।

ওই দিন রাতে খবর পেয়ে, কলকাতা পুলিশের নার্কোটিক্স বিভাগের গোয়েন্দারা শরৎ বসু রোডের আশপাশে সাদা পোশাকে নজরদারি চালাচ্ছিলেন। রাত ১১টা নাগাদ প্রায় সাড়ে তিন গ্রাম হেরোইন-সহ পাঁচ কলেজ পড়ুয়াকে গ্রেফতার করা হয়। যার বাজারমূল্য প্রায় ৮ হাজার টাকা। ধৃত রৌনক জৈন, রৌনক সিংহ, লক্ষ আগরওয়াল, সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অর্ঘ্যকমল বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি কলকাতাতেই। সকলেরই বয়স ২৩ থেকে ২৯-এর মধ্যে।


এই পুরিয়া করেই হেরোইন বিক্রি করা হচ্ছিল।

রাতেই তাঁদের জেরা করে তিন মাদক বিক্রেতার সন্ধান পান গোয়েন্দারা। শুরু হয় তল্লাশি। গভীর রাতে আশুতোষ কলেজের কাছে এসপি মুখার্জি রোড থেকে ধরা পড়ে তিন বিক্রেতা। তাদের নাম আমন গুপ্ত, অসীম হাতি, প্রীতম পাত্র। এদের বয়সও ২৩-২৪। ধৃতদের কাছ থেকে প্রায় ৪০ গ্রাম হেরোইন মিলেছে। যার বাজারমূল্য প্রায় ১ লাখ টাকা। ওই তিন যুবক পুলিশি জেরায় জানিয়েছে, বিভিন্ন কলেজে তারা মাদক সরবরাহ করে। ফোন করে তাদের কাছ থেকে স্কুল-কলেজের পড়ুয়ারা মাদক কেনে। গত তিন মাস ধরে তারা এই মাদক সরবরাহের কাজ করছে বলেও জেরায় জানিয়েছে ওই তিন জন। গোয়েন্দাদের অনুমান, এই চক্রে আরও অনেকে জড়িত।

আরও পড়ুন, মুখে তোলা শসাটা ছিটকে পড়ল হঠাৎ, নালার বিস্ফোরণে ট্যাংরায় আতঙ্ক

(কলকাতার ঘটনা এবং দুর্ঘটনা, কলকাতার ক্রাইম, কলকাতার প্রেম - শহরের সব ধরনের সেরা খবর পেতে চোখ রাখুন আমাদের কলকাতা বিভাগে। )

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।