• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কার মাঞ্জায় দুর্ঘটনা, খুঁজতে হিমশিম পুলিশ

Kite strings
প্রতীকী ছবি

চিনা মাঞ্জার ঘুড়ির সুতো পেঁচিয়ে গলা কেটে শনিবারই এ জে সি বসু উড়ালপুলের উপরে দুর্ঘটনায় পড়েন এক বাইকআরোহী। পরে হাসপাতালে তিনি মারা যান। কিন্তু তার পরেও ওই এলাকায় পরিস্থিতির কোনও বদল ঘটেনি। রবিবার, ওই উড়ালপুলে রেকার নিয়ে উঠে পরীক্ষা করে কলকাতা পুলিশ। লালবাজারের খবর, রেকারে আটকে গিয়েছে ঘুড়ির সুতো। সেই সব সুতোয় চিনা মাঞ্জা রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

ঘটনার পরে রবিবার গাফিলতির জেরে মৃত্যু ঘটানোর একটি মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

লালবাজার সূত্রে খবর, শনিবারের দুর্ঘটনায় মৃত আখতার খান অনলাইনে খাবার সরবরাহকারী একটি সংস্থার কর্মী ছিলেন। উড়ালপুল থেকে নামার সময়ে গলায় সুতো আটকে যাওয়ায় তিনি বাইক নিয়ে ছিটকে পড়েন। আখতারকে উদ্ধারের পরে পুলিশ দেখে, তাঁর হেলমেটের তলা দিয়ে চিনা মাঞ্জার সুতো গলায় পেঁচিয়ে গিয়েছিল। তাতেই গলা কেটে রক্তাক্ত হন আখতার।

পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে রবিবার দিনের বিভিন্ন সময়ে ইস্ট ট্র্যাফিক গার্ডের পুলিশ রেকার নিয়ে ওই উড়ালপুলে ঘুরে বেড়িয়েছে। তখনই উদ্ধার হয়েছে মাঞ্জা দেওয়া সুতো।

যদিও শনিবারের ওই ঘটনার জন্য কে বা কারা দায়ী, তা এখনও বুঝে উঠতে পারছে না পুলিশ। পুলিশকর্মীদের একাংশের মতে, কোথা থেকে কে ঘুড়ি ওড়াচ্ছেন, তার হদিস পাওয়া কার্যত খড়ের গাদায় সুচ খোঁজার মতোই ব্যাপার। তা সত্ত্বেও উড়ালপুলের নীচের বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ খবর শুরু করেছে পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে উড়ালপুলের উপরে থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজও।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন