শহর কলকাতায় চলন্ত বাসে শ্লীলতাহানির অভিযোগ। ১০০ নম্বরে ফোন পেয়ে কলকাতা পুলিশের তৎপরতায় শিয়ালদহের কাছে এনআরএস হাসপাতালের সামনে ওই বাস থেকেই মহম্মদ খান (২৪) নামে এক অভিযুক্ত গ্রেফতার হয়েছে। রবিবার সকালে সকাল ১০টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে ধুলাগড়-শিয়ালদহ রুটের একটি বাসে। হাওড়ার বাকসাড়ার বাসিন্দা ওই মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আরও এক অভিযুক্তের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার সকালে বাকসাড়া-শিয়ালদহ রুটের ওই বাসটিতে ওঠেন ওই মহিলা। তাঁর সঙ্গে ছিলেন স্বামী এবং মেয়ে। চলন্ত বাসের মধ্যে ওয়েলিংটন ক্রসিংয়ের কাছে দুই যুবক ওই মহিলার শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ। অভিযোগকারী মহিলা, বাস থেকেই ১০০ নম্বরে ফোন করে পুলিশে খবর দেন।

সকাল ১০টা ৮ মিনিটে ওই ফোন পেয়ে প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তৎপর হয় পুলিশ। স্থানীয় থানা, ভ্রাম্যমাণ টহলদারি বাহিনী এবং ট্রাফিক কন্ট্রোলের যৌথ উদ্যোগে ১০.১৫ মিনিটে এনআরএস হাসপাতালের মেন গেটের উল্টোদিকে বাসটিকে (নম্বর ডব্লিউ বি ১১সি-২৬৪৫) আটকান। ওই বাস থেকেই মহম্মদ খানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে হাওড়ারই উলুবেড়িয়ার কুলগাছিয়া পটুয়াপাড়ার বাসিন্দা। তবে অন্য অভিযুক্ত পালিয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন: আধিকারিককে ব্যাট দিয়ে পেটানো আকাশ বিজয়বর্গীয়র জামিন, শূন্যে গুলি ছুড়ে উল্লাস সমর্থকদের

আরও পড়ুন: মিনি স্কার্ট, খোলামেলা টপ পরে ঢোকা যাবে না লখনউয়ের ইমামবড়ায়, ‘ফতোয়া’ জারি জেলাশাসকের

পুলিশ জানিয়েছে, যে এলাকায় অভিযুক্ত ধরা পড়েছে, সেটা মুচিপাড়া থানার অন্তর্গত। ওই থানাতেই নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে দ্রুত তদন্তের প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে অন্য অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।