• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মায়ানমার-চিন রেল নিয়ে অস্বস্তিতে দিল্লি

Myanmar China
—ফাইল চিত্র।

ভারতের অস্বস্তি বাড়িয়ে মায়ানমারের সঙ্গে রেল সংযোগ তৈরি করছে চিন। গোটা প্রকল্পটির দিকে কড়া নজর রেখেছে সাউথ ব্লক। এখনও পর্যন্ত প্রকাশ্যে মুখ খোলা হয়নি। তবে বিদেশ মন্ত্রক সূত্রের বক্তব্য, পরবর্তী কালে ওই প্রকল্পের রূপরেখা দেখে মায়ানমারের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় বিষয়টি তোলা হবে। 

সাউথ ব্লক সূত্রে খবর, চিনের কুনমিং থেকে মায়ানমারের দু’টি বন্দরে রেল সংযোগ গড়ার প্রকল্প নিয়েছে বেজিং। সমস্যা হল, এই রেল সংযোগ রাখাইন প্রদেশের সিতোই বন্দরের পাশ দিয়ে যাবে। বঙ্গোপসাগরের উপর এই সিতোই বন্দরটি ২০১৬ সালে ভারত তৈরি করেছিল। ওই এলাকায় একটি কৌশলগত ঘাঁটি তৈরি করা এবং নরেন্দ্র মোদী সরকারের ‘অ্যাক্ট ইস্ট’ নীতিকে জোরদার করার জন্যই এই বন্দরের নির্মাণ। কূটনৈতিক সূত্রে জানা গিয়েছে, চিন-মায়ানমার অর্থনৈতিক করিডরের অঙ্গ হিসেবে চিনা রেল ওই এলাকায় সমীক্ষা করতে শুরু করেছে। বিদেশ মন্ত্রকের আশঙ্কা, এই রেল প্রকল্পের মাধ্যমে রাখাইন প্রদেশে ভারতীয় পরিকাঠামোর উপর নজর রাখাই শুধু নয়, ভবিষ্যতে মায়ানমারের অন্য বন্দরগুলিরও দখল নিতে চাইছে বেজিং।

সিতোই বন্দর তৈরির পর ভারতের সঙ্গে সংযোগ তৈরির জন্য দক্ষিণ-পূর্বের দেশগুলির সুবিধা হচ্ছে। সিতোইয়ের সঙ্গে মাল্টি মোডাল ট্রান্সপ‌োর্টের মাধ্যমে যুক্ত করা হয়েছে মিজোরামকে। পাশাপাশি, ভারতের সঙ্গে তাইল্যান্ডের একটি সড়ক যোগাযোগ প্রকল্প শুরু হয়েছে মায়ানমারের উপর দিয়ে। ২০২০ সালে তার কাজ শুরু হয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। গোটা বিষয়টি বেজিংয়ের নজরে রয়েছে বলে নয়াদিল্লির কূটনীতিকদের দাবি।  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন