• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, রয়েছেন হোম আইসোলেশনে

Boris
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। —ফাইল চিত্র

গত ১১ মার্চ সংক্রমণ নিশ্চিত হয়েছিল স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাদিন ডোরিসের। তার ১৫ দিন পরে এ বার করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। আজ শুক্রবারই তাঁর সংক্রমণ নিশ্চিত হয়েছে। তবে তাঁর সংক্রমণ মৃদু বলে জানিয়েছেন বরিস নিজেই। আপাতত হোম আইসোলেশনে থাকলেও বাড়ি থেকেই ভিডিয়ো কনফারেন্সে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ-সহ সরকারের যাবতীয় কাজকর্ম করবেন বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। খোদ প্রধানমন্ত্রী আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগ ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

শুক্রবার টুইটারে ভিডিয়ো বার্তায় বরিস জানিয়েছেন, ''গত ২৪ ঘণ্টায় জ্বর ও ক্রমাগত কাশির উপসর্গ দেখা দিয়েছিল। সেই কারণেই চিফ মেডিক্যাল অফিসারের পরামর্শমতো করোনাভাইরাসের টেস্ট করিয়েছিলাম। আজ সেই পরীক্ষার রিপোর্ট 'কোভিড-১৯ পজিটিভ' এসেছে।'' 

একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, আপাতত 'ওয়ার্ক ফ্রম হোম' বা বাড়ি থেকে কাজ করবেন। রয়েছেন হোম আইসোলেশনে।  সেখান থেকেই ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে সরকারি কাজকর্ম পরিচালনা করবেন। তিনি বলেছেন, ''যে বিশেষজ্ঞ দল করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় কাজ করছে, তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি।'' গোটা দেশে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী-সহ যে সব কর্মীরা কাজ করছেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়ে বরিস বলেছেন, ''সবাই মিলে একসঙ্গে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করব।'' 

আরও পড়ুন: করোনা আপডেট: বিশ্বে মৃত ২৪ হাজারের বেশি, আক্রান্ত ৫ লক্ষাধিক, বেড়েই চলেছে সংক্রমণ

আরও পড়ুন: আইসোলেশনে থাকা শহরের ফুসফুস ফিরে পাচ্ছে শুদ্ধ বাতাস

সারা বিশ্বের মতো ব্রিটনেও ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। শুক্রবার পর্যন্ত সেখানে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১১ হাজার ৬৫৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫৭৮ জনের। চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ১৩৫ জন। দেশ জুড়ে করোনার মোকাবিলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নানা কর্মকাণ্ড চলছে। তার মধ্যেই দেশের প্রধানমন্ত্রীর সংক্রমণ নিশ্চিত হওয়ায় উদ্বেগ ছড়াল ব্রিটেনের রাজনৈতিক মহলেও। গত কয়েক দিনে যাঁদের সংস্পর্শে এসেছেন বরিস, তাঁদের চিহ্নিত করার কাজ শুরু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে ব্রিটেন প্রশাসনের তরফে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন