সন্ত্রাসে মদত দেওয়া নিয়ে আগেই মুখ পুড়েছে আন্তর্জাতিক মহলে। তার পরেও নিজেদের অবস্থানে অনড় পাকিস্তান সরকার। এ বার দাউদ ঘনিষ্ঠ জাবির মোতিওয়ালাকে বাঁচাতে মরিয়া হয়ে উঠল তারা। ব্রিটেন থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে তার প্রত্যর্পণে তীব্র আপত্তি জানাল।  

মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমের ঘনিষ্ঠ এবং বিশ্বস্ত বলে পরিচিত জাবির মোতিওয়ালা। টাকা পাচার, ব্ল্যাকমেইল, তোলাবাজি এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হেরোইন পাচারের অভিযোগে গত বছর অগস্টে প্যাডিংটনের হিলটন হোটেল থেকে গ্রেফতার করা হয় তাকে। এই মুহূর্তে লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জাবির মোতিওয়ালার শুনানি চলছে। সেখানে তাকে আমেরিকায় প্রত্যর্পণের দাবি জানিয়েছে সে দেশের গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই।

সোমবার আদালতে জাবির মোতিওয়ালার হয়ে সওয়াল জবাব করেন ডি কোম্পানির আইনজীবীরা। সেখানে তাঁরা দাবি করেন, মারাত্মক রকমের অবসাদে ভুগছে জাবির। এই মুহূর্তে তার বিরুদ্ধে অপরাধ মামলা চালানো ঠিক হবে না। তাঁদের এই দাবিতে সমর্থন জানিয়েছেন পাক কূটনীতিবিদরা।

আরও পড়ুন: রাজ্যের মাদ্রাসা ব্যবহার করে জঙ্গিদের সংগঠন বাড়ছে, লোকসভায় জানালেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী​

শুধু তাই নয়, ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে, জাবির মোতিওয়ালার প্রত্যর্পণ আটকাতে ইতিমধ্যেই উদ্যোগী হয়েছে লন্ডনের পাক হাই কমিশন। অভিযুক্তের আইনজীবীদের হয়ে আদালতে একটি চিঠি জমা দেওয়া হয়। তাতে বলা হয়, জাবির মোতিওয়ালা এক জন সম্ভ্রান্ত ব্যবসায়ী। তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ মিথ্যা।

তবে মার্কিন সরকারের আইনজীবী জন হার্ডি এই দাবি উড়িয়ে দেন বেল গোপন সূত্রে জানা গিয়েছে। আদালতে তিনি জানান, দাউদ ইব্রাহিমের হয়ে গোটা বিশ্বে ঘুরে বেড়ায় জাবির মোতিওয়ালা। মাফিয়া এবং অপরাধ জগতের লোকজনের সঙ্গে নিয়মিত বৈঠক করে। ডি কোম্পানির কালো টাকা বিভিন্ন বিদেশি সংস্থায় বিনিয়োগের পাশাপাশি, ইউরোপের বিভিন্ন দেশে তোলা আদায় করে সে।

তবে জাবিরকে বাঁচাতে পাকিস্তান সরকার যে ভাবে উঠে পড়ে লেগেছে তার পিছনে অন্য কারণ দেখছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা। তাঁদের দাবি, আসলে দাউদকে আড়াল করাই উদ্দেশ্য পাকিস্তানের। কোনও ভাবে মার্কিন গোয়েন্দারা জাবির মোতিওয়ালার নাগাল পেলে, দাউদ সম্পর্কে অনেক তথ্য তাঁদের কাছে চলে যেতে পারে। প্রকাশ্যে চলে আসতে পারে করাচি থেকে ডি কোম্পানির যাবতীয় কাজকর্ম। পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের সঙ্গে সংযোগের কথাও আর চাপা থাকবে না। তাই প্রত্যর্পণ আটকাতে উঠে পড়ে লেগেছে পাক সরকার। 
 

আরও পড়ুন: স্বস্তিতে রাজীব কুমার, গ্রেফতারির উপর ‘রক্ষাকবচ’ বহাল ২২ জুলাই পর্যন্ত​

আন্তর্জাতিক মাদক সিন্ডিকেট চালানো এবং পাকিস্তানের মাটিতে বিভিন্ন সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে সংযোগের জন্য ইতিমধ্যেই দাউদ ইব্রাহিমকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষিত করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। 

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।