• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনাকে হারিয়ে ১০৩ বছর বয়সে এসে দীর্ঘদিনের ইচ্ছে পূরণ করে নিলেন মহিলা!

Tatoo
ট্যুটু করাচ্ছেন ডরোথি পোলক। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নেওয়া।

কত মানুষের কত ছোট-বড় ইচ্ছে জীবনে অপূর্ণ থেকে যায়। কিন্তু এই মহিলা তাঁর ছোট্ট অথচ, প্রিয় অপূর্ণ ইচ্ছাও ১০৩ বছরে পূরণ করে নিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে তাঁর সেই কাহিনি এখন ভাইরাল। ফেসবুকে তাঁর বেশ কয়েকটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে।

আমেরিকার মিশিগানের বাসিন্দা ডরোথি পোলক জুন মাসেই তাঁর ১০৩ বছরের জন্মদিন পার করেন। কিন্তু সেদিন তিনি তা সবার সঙ্গে পালন করতে পারেননি। মিশিগানের মাস্কেগনের একটি নার্সিংহোমে তাঁকে জন্মদিনটি কাটাতে হয়। কারণ সেই সময় তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিত্সাধীন ছিলেন। তাঁর নার্স জানান, দীর্ঘদিন সবার থেকে বিচ্ছিন্ন থেকে তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।

করোনাকে হারিয়ে শেষে ডরোথি বাড়ি ফেরেন। কিন্তু সম্প্রতি তাঁর দীর্ঘদিনের অপূর্ণ শখ পূরণের ইচ্ছে হয়। তাঁর ইচ্ছে ছিল, হাতে একটি পারমানেন্ট ট্যাটু করাবেন। কিন্তু ইচ্ছে থাকলেও কয়েক দশক তা পূরণ করার সুযোগ হয়নি। এখন তিনি ঠিক করেন, করোনার অতিমারির মাঝেও তিনি সেই ইচ্ছে পূরণ করবেনই। যেমন ভাবা তেমন কাজ।

আরও পড়ুন: রোনাল্ডো-বিপাশার চুম্বনের ছবি ভেসে উঠল সোশ্যাল মিডিয়ায়

ডরোথির এক নাতনি টেরেসা সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁর ঠাকুমাকে তাঁরা এমন মনমরা হয়ে থাকতে দেখেননি। নার্সিংহোম থেকে ফিরেও তিনি যেন স্বভাবিক হতে পারছিলেন না। তাই তাঁরা ঠিক করেন, ঠাকুমার দীর্ঘদিনের ইচ্ছে পূরণের ব্যবস্থা হবে। সেই মতো ডরোথি এক ট্যাটু স্টুডিয়োতে যান। সেখানে তিনি একটি সবুজ রঙের ব্যাঙ আঁকান তাঁর হাতে।

আরও পড়ুন: জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কুমিরের মুখ থেকে সন্তানকে বাঁচালেন বাবা

ট্যাটু নিয়ে ডরোথির সেই খুশির ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন তাঁর নাতনি। সেখানে দৃশ্যতই তিনি বেশ উউচ্ছ্বসিত  ছিলেন তাঁর হাতে এমন একটা ট্যাটু করাতে পেরে, তিনি নিজেও সে কথা জানিয়েছেন। ডরোথি জানিয়েছেন, তিনি ব্যাঙ পছন্দ করেন। অনেক দিন আগে তাঁর এক নাতি ঠাকুমাকে এমন একটা ট্যাটু করিয়ে দিতে চান। কিন্তু তখন সেটা সম্ভব হয়নি। এত দিনে সেই ইচ্ছে পূরণ হল।

দেখুন সেই পোস্ট:

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন