• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফিলিপিন্সে সমুদ্রের পারে বিকিনি পরার জন্য ৪০ ইউরো জরিমানা! কেন জানেন?

String Bikini
স্ট্রিং বিকিনির জেরে জরিমানা দিতে হল এই মহিলাকে। ছবি ফেসবুক থেকে সংগৃহীত।

Advertisement

বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ফিলিপিন্সে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন তাইওয়ানের এক মহিলা। ছুটি কাটাতে তিনি ঘুরতে গিয়েছিলেন ফিলিপিন্সের বোরাকে বিচে। সেই বিচে বিকিনি পরে ঘুরছিলেন তিনি। এমনিতে ওই বিচে বিকিনি পরে ঘোরা খুব একটা অস্বাভাবিক ঘটনা নয়। কিন্তু ওই মহিলাকে জরিমানা করা হল। কেন জানেন? কারণ তাঁর পরা স্ট্রিং বিকিনিতে কাপড়ের ভাগ ছিল না বললেই চলে। এই পোশাক নিয়ে আপত্তি জানান সেখানে উপস্থিত পর্যটকরা। সেই অভিযোগের জেরেই পড়ে তাঁর ৪০ ইউরো জরিমানা করে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, ২৬ বছর বয়সি তাইওয়ানের ওই মহিলার নাম লিন ঝু টিং। স্ট্রিং বিকিনি পরা তাঁর ছবি ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মেও। এর পরই বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনের নজরে আসে। ছবি দেখে লিনকে চিহ্নিত করে হোটেল থেকে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। পাশাপাশি তাঁকে জরিমানাও করা হয়।

তবে বিষয়টি নিয়ে সে দেশের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের কাছে মুখ খুলেছেন পুলিশ অফিসার মেজর জেস বেলন। তিনি জানিয়েছেন, যথাযথ পোশাক না পরার জন্যই জরিমানা করা হয়েছে তাঁকে। বেলন বলেছেন, ‘‘টিংয়ের পোশাক বলতে ছিল শুধুমাত্র দড়ি। আর কেউ যাতে এই ভুলের পুনরাবৃত্তি না করেন, তার জন্য এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’’ সে দেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের প্রতি সম্মান জানানোর আর্জিও পর্যটকদের কাছে করেছেন তিনি।

ঘুরতে এসে জরিমানার মুখে পড়ে বেশ বিরক্ত টিং। তাঁর দাবি, এই ধরনের পোশাক যে পরা যাবে না, তা তাঁর জানা ছিল না। পাশাপাশি স্ট্রিং বিকিনিকে এক ধরনের পোশাক শিল্পও বলতে চেয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুন: অফিস যাওয়ার আগে আদর করেনি মা! দু’বছরের বাচ্চার অভিমানে গলে জল নেটদুনিয়া

আরও পড়ুন: ‘যেমন কর্ম তেমন ফল’ হাড়ে হাড়ে টের পেল এই চোর!

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন