যাঁরা দামি খাবার পছন্দ করেন, তাঁদের জন্য আদর্শ গন্তব্য হতে পারে টোকিওর গ্র্যান্ড হায়াতের দ্য ওক ডোর স্টেকহাউস। এখানে আপনি পাবেন গোল্ডেন জায়ান্ট বার্গার। দাম? ১ লক্ষ ইয়েন (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৬৫ হাজার টাকা) মাত্র।

ভাবছেন, একটা বার্গার, তার দাম একটা আইফোনের সমান হতে পারে কী করে? বার্গারটি বানিয়েছেন মার্কিন শেফ প্যাট্রিক শিমাডা। রেস্তরাঁর তরফে জানানো হয়েছে, এটিতে রয়েছে বিশেষ ভাবে প্রস্তুত করা ১ কেজি গরুর মাংসের একটি টুকরো (যে মাংস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে টোকিও নিয়ে যাওয়া হয়), লেটুস, টমেটো, পেঁয়াজ, জাপানি চিডার পনির, জাপানের ওয়াগুউ গরুর মাংসের স্লাইস, ফোয়ি গ্রাস (বিশেষ ভাবে প্রতিপালন করা হাঁসের লিভার থেকে তৈরি খাদ্য উপাদান ), টাটকা তৈরি করা কালো ট্রাফলস (এটি বিশ্বের অন্যতম দামি খাদ্য উপকরণ), সোনালি বান, আলু ভাজা (আলুটিকে তিনবার রান্না করা হয় বিশেষ পদ্ধতিতে)। যে সসগুলি ব্যবহার করা হয় তাও বিশেষভাবে তৈরি।

সবার আগে সোনালি বানটিকে মাঝামাঝি কেটে দু’টি স্লাইস করা হয়। নীচের অংশটিকে বেস হিসেবে ব্যবহার করা হয়। সেটিকে সেঁকে নিয়ে তার ওপর গর্লিক স্যাফ্রন সস দেওয়া হয়। এর ওপর লেটুস ও টমেটোর আস্তরণ তৈরি করে তার ওপর রাখা হয় ১ কেজি ওজনের মাংসের টুকরোটি। এর ওপর জাপানি চিডার পনিরের স্তর। তার ঠিক ওপরেই দেওয়া হয় ফোয়ি গ্রাস, ট্রাফলস। তার ওপর পরতে পরতে সাজানো হয় জাপানের ওয়াগুউ গরুর মাংসের স্লাইসও অন্যান্য উপকরণগুলি। সবার ওপরে রাখা হয় সোনালি বানটির ওপরের স্লাইসটি।

আরও পড়ুন : সরফরাজকে ‘মোটা মোটা’ বলে ডাকলেন পাকিস্তানি ফ্যানরা

আরও পড়ুন : আরএসএস ‘কেত’! এ বার খাকি হাফ প্যান্ট পরে ট্রোলড প্রিয়ঙ্কা চোপড়া

প্রতিটি খাদ্য উপকরণ শুধু ব্যায়বহুলই নয়, সেই সঙ্গে তাদের যেভাবে আলাদা আলাদা ভাবে রান্না করা হয়, তা বেশ সময় সাপেক্ষ।

 

পুরো পদটি আপনার টেবিলে পরিবেশন করা হবে একটি ম্যাগনাম সাইজের শ্যাম্পেন বা রেড অথবা হোয়াইট ওয়াইনের সঙ্গে। এই বার্গারের আকারও যথেষ্ট বড়, একটি চপ বোর্ডের কাছাকাছি। তাই সব মিলিয়ে দ্য গোল্ডেন জায়ান্ট বার্গারের দাম একটু বেশি বলে জানাচ্ছেন স্টেকহাউস কর্তৃপক্ষ।