• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ডোনাল্ড ট্রাম্পের দিকে গ্রেটা থুনবার্গের চাউনি এখন ইন্টারনেটে ভাইরাল

Greta
ট্রাম্প ও গ্রেটা। টুইটার থেকে নেওয়া ছবি।

Advertisement

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দিকে পরিবেশ কর্মী গ্রেটা থুনবার্গের হিমশীতল চাউনি এখন নেটিজেনদের কাছে চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে সোমবার আগুন ঝরানো বক্তব্যের পর ট্রাম্পের দিকে থুনবার্গের এই তাকানো ক্যামেরায় ধরা পড়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হওয়ার পর তা ভাইরাল হয়ে যায়।

জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশ রক্ষা নিয়ে আন্দোলনের মুখ এখন গ্রেটা থুনবার্গ। ১৬ বছর বয়সী এই সুইডিস কিশোরীর গলায় বিশ্বেররাষ্ট্র নেতাদের প্রতি ক্ষোভ ঝরে পড়ছে বার বার। জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে ২০১৮ সালেই এই স্কুল পড়ুয়া সুইডেনের সংসদের বাইরে প্রতিবাদ করেন। সোমবার তাঁকে রাষ্ট্রপুঞ্জে বলার সুযোগ দেওয়া হয়।

সোমবার রাষ্ট্রপুঞ্জে থুনবার্গ তাঁর বক্তব্যে বিশ্বের রাষ্ট্রনেতাদের তীব্র সমালোচনা করেন। বলেন, ‘আমার এখানে থাকার কথা নয়। এই সময় আমার সাগরের অন্য পারে স্কুলে থাকার কথা ছিল। ফাঁকা বুলি দিয়ে আপনারা আমার স্বপ্ন কেড়ে নিয়েছেন, আমার শৈশবটাই কেড়ে নিয়েছেন। আজ আমার কথা শুনতে এসেছেন। ভাবছেন আমাদের প্রজন্ম আপনাদের দিশা দেখাবে? এত সাহস হয় কী করে আপনাদের।’

আরও পড়ুন : হাইওয়েতে দুই ভাল্লুকের লড়াই দূরে থেকে তীক্ষ্ণ দৃষ্টিতে লক্ষ্য রাখছে নেকড়ে!

আরও পড়ুন : ‘জেমস বন্ড’ স্টাইলে চলন্ত অটোর চাকা পরিবর্তন

গ্রেটা থুনবার্গ বক্তব্য রাখার পর সেখানে আসেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, প্রথমে কয়েকজন নিরাপত্তাকর্মী ঢুকছেন। প্রবেশ পথের কাছেই দাঁড়িয়ে ছিলেন থুনবার্গ। নিরাপত্তাকর্মীদের ঢুকতে দেখে, থুনবার্গ উত্সুক হয়ে দেখতে থাকেন, কে আসছেন। এক পা এগিয়েও যান। কিন্তু যেই দেখেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প ঢুকছেন, অমনি তাঁর মুখের ভাব পরিবর্তন হয়ে যায়। শীতলদৃষ্টিতে ট্রাম্পের দিকে তাকিয়ে থাকেন থুনবার্গ।

ট্রাম্প ও থুনবার্গের এই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর ভাইরাল হতে সময় নেয়নি।

 

 

 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন