আমেরিকার অরল্যান্ডোয় এক্সপ্রেসওয়ে ধরে গাড়িয়ে চালিয়ে যাচ্ছিলেন ক্রিশ্চিনা সেত্তানি। পেশায় তিনি স্বাস্থ্যকর্মী। ওই রাস্তা দিয়ে যেতে যেতে তিনি দেখলেন রাস্তার ধারে একটি বহুতলের ছাদের একেবারে কিনারায় এক ব্যক্তি বসে আছেন। ক্রিশ্চিনা বলেছেন, ‘‘ওই ব্যক্তিকে দেখে আমার মনে হয়েছিল, তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন। তাই গাড়ি থামিয়ে চলে যাই ওই বাড়ির ছাদে।’’

সেখানে গিয়ে ওই ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলে তিনি বুঝতে পারলেন, তাঁর আশঙ্কাই সত্যি। তখন তিনি ওই ব্যক্তিকে বোঝাতে শুরু করেন। অনুরোধ করেন আত্মঘাতী না হতে। আর তা করতে গিয়ে শোনান নিজের প্রিয় ব্যান্ডের একটি গান। সেই গান শুনেই ওই ব্যক্তির মনে আসে পরিবর্তন।

আমেরিকার জনপ্রিয় একটি রকব্যান্ড হল লিনকিন পার্ক। ওই ব্যান্ডেরই ‘ওয়ান মোর লাইট’ গানটি শোনান ক্রিশ্চিনা। সেই গানের ‘হু কেয়ার্স ইফ ওয়ান মোর লাইট গোজ আউট’ লাইনটি দাগ কেটে দেয় ওই ব্যক্তির মনে।

ক্রিশ্চিনা অবশ্য ইতিমধ্যেই ফোন করে ফেলেছিলেন পুলিশকে। ফোন পেয়ে ততক্ষণে ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছিল পুলিশ। তাঁরা তখন আত্মহত্যা করতে যাওয়া ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করেন। ভিডিয়ো-সহ এই ঘটনার কথা টুইট করা হয়েছে ওরেঞ্জ কাউন্টি শেরিফ’স অফিসের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে। তার পরই লিনকিন পার্কের ওই গান ফের মনে ধরেছে নেটিজেনদের। আর পথে যেতে যেতে ব্যক্তির জীবন বাঁচিয়ে ক্রিশ্চিনা পাচ্ছেন ‘হিরো’র সম্মান। 

আরও পড়ুন: বেজিংয়ের সমস্ত রেস্তোরাঁ থেকে ইসলাম সম্পর্কিত প্রতীক সরিয়ে ফেলার নির্দেশ!

আরও পড়ুন: কী এমন সমীকরণ? যার উত্তর নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত নেটিজেনরা!