মন্তব্যে ক্ষোভ, মঞ্জরেকরকে তোপ জাডেজার
ক্রিকেটীয় কোনও কারণ নয়। বুধবার জাডেজা শিরোনামে চলে এলেন এক প্রাক্তন ক্রিকেটারকে টুইটারে আক্রমণ করে। সেই প্রাক্তন ক্রিকেটারের নাম সঞ্জয় মঞ্জরেকর।
Sanjay and Jadeja

যুযুধান: মঞ্জরেকরকে জবাব দিয়ে শিরোনামে জাডেজা। ফাইল চিত্র

তিনি এখনও বিশ্বকাপের প্রথম একাদশে সুযোগ পাননি। কিন্তু তাতে কী! দলের বাইরে থেকেই শিরোনামে চলে এলেন রবীন্দ্র জাডেজা। 

ক্রিকেটীয় কোনও কারণ নয়। বুধবার জাডেজা শিরোনামে চলে এলেন এক প্রাক্তন ক্রিকেটারকে টুইটারে আক্রমণ করে। সেই প্রাক্তন ক্রিকেটারের নাম সঞ্জয় মঞ্জরেকর।

হঠাৎ মঞ্জরেকর বনাম জাডেজা যুদ্ধ কেন শুরু হয়ে গেল? ঘটনার সূত্রপাত, মঞ্জরেকরের এক মন্তব্য ঘিরে। এর আগে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি-সহ বেশ কয়েক জন ভারতীয় ক্রিকেটারের সমালোচনা করেছিলেন মঞ্জরেকর। যা নিয়ে বিতর্কও হয়েছিল। বাংলাদেশ ম্যাচের ঠিক আগে মঞ্জরেকর মন্তব্য করেন, জাডেজার মতো সাধারণ মানের ক্রিকেটারদের তিনি দলে দেখতে চান না। মঞ্জরেকর ইঙ্গিত করেছিলেন, যে বল বা ব্যাটে ম্যাচ উইনার নয়, তাকে দলে রাখার মানে নেই।

মঞ্জরেকরের এই মন্তব্য একেবারেই ভালভাবে নিতে পারেননি জাডেজা। বুধবার ভারতের এই অলরাউন্ডার টুইট করেন, ‘‘তা সত্ত্বেও আপনি যা ম্যাচ খেলেছেন, তার দ্বিগুণ ম্যাচ খেলেছি আমি। আর আমি এখনও খেলে চলেছি। যারা কিছু অর্জন করেছে, তাদের সম্মান করতে শিখুন। আপনার বাচালতা অনেক সহ্য করেছি।’’     

এই বিশ্বকাপের শুরু থেকেই নানা ভাবে আলোচনার কেন্দ্রে উঠে এসেছেন জাডেজা। বিকল্প ফিল্ডার হিসেবে নেমে দুরন্ত ক্যাচও ধরেছিলেন। অনেক প্রাক্তন ক্রিকেটারই তাঁকে প্রথম এগারোয় নেওয়ার কথাও বলেছিলেন। ব্যতিক্রম দেখা গেল মঞ্জরেকরকে। 

জাডেজার এই টুইট দেখার পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। কেউ কেউ মনে করছেন, মঞ্জরেকর এই মন্তব্য করে একেবারেই ঠিক করেননি। আবার কারও কারও ধারণা, জাডেজা একটু বেশি উত্তেজিত হয়ে পড়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভাবে প্রতিক্রিয়া জানানো উচিত হয়নি তাঁর। 

জাডেজা তাঁর টুইটে পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, মঞ্জরেকরের থেকে তিনি অনেক বেশি ম্যাচ খেলেছেন। পরিসংখ্যানও জাডেজার পক্ষেই। ১৫১টি ওয়ান ডে ম্যাচ খেলেছেন জাডেজা। করেছেন ২০৩৫ রান। নিয়েছেন ১৭৪ উইকেট। মঞ্জরেকর খেলেছেন ৭৪ ওয়ান ডে। করেছেন ১৯৯৪ রান। 

ধোনি নিয়েও বিতর্ক উস্কে দিয়েছিলেন মঞ্জরেকর। ইংল্যান্ড ম্যাচের পরে তিনি টুইট করেছিলেন, ‘‘বিশ্বকাপে স্পিনারদের বিরুদ্ধে ধোনি করেছে ৮৭ বলে ৪১ রান। কিন্তু বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচগুলোয় যদি দেখেন, সেখানে ৫৬ বলে ৬৯ করেছিল ধোনি। এতে বোঝা যাচ্ছে, ব্যাপারটা মানসিকতারও। বড় ম্যাচে উইকেট হারানোর ঝুঁকি নিতে চাইছে না ধোনি।’’ 

ম্যাচের
Live
স্কোর