• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কোথায় কোয়রান্টিন? বিদেশ থেকে ফিরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন পুলিশ কর্তার ছেলে

Airport
বিমানবন্দরে জারি স্ক্রিনিং। ছবি: পিটিআই

আমলাপুত্র, ব্যবসায়ীপুত্রের পর, এ বার এক আইপিএস কর্তার ছেলের বিরুদ্ধে উঠল বিদেশ থেকে ফিরে কোয়রান্টিনে যাওয়ার নির্দেশ অমান্য করার অভিযোগ। বিদেশ থেকে ফিরে নিয়ম মতো গৃহবন্দি না থেকে আবাসন চত্বরে ঘুরে বেড়ানোর অভিযোগ উঠেছে রাজ্য পুলিশের এক শীর্ষকর্তার ছেলের বিরুদ্ধে।

টালিগঞ্জের পুলিশ আবাসনে ওই আইপিএস অফিসারের কোয়ার্টার রয়েছে। ওই আবাসনেই থাকেন রাজ্য ও কলকাতা পুলিশের একাধিক শীর্ষ আধিকারিক। শনিবার তাঁদেরই একাংশের কাছ থেকে স্থানীয় কাউন্সিলরের কাছে অভিযোগ আসে। অভিযোগ, এক আইপিএস কর্তার ছেলে বিদেশ থেকে ফিরে হোম কোয়রান্টিনে না থেকে এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এর পর কলকাতা পুরসভার এক চিকিৎসক অসীম গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে একটি দল ওই পুলিশকর্তার ফ্ল্যাটে যায়। কিন্তু অভিযোগ, পুলিশকর্তার স্ত্রী পুরসভার ওই চিকিৎসক দলের সঙ্গে চরম অসহযোগিতা করেন। ওই চিকিৎসক দলের এক সদস্য এ দিন বলেন, ‘‘শুধু অসহযোগিতা নয়, ওই পুলিশ কর্তার স্ত্রী  উল্টে আমাদের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার হুমকি দিচ্ছিলেন।’’

এর পর বিষয়টি টালিগঞ্জ থানাকে জানানো হয় বলে জানিয়েছেন ওই চিকিৎসক দলের এক সদস্য। এর পরে স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। ওই পুলিশকর্তার ফ্ল্যাটে ফের চিকিৎসক দল পাঠানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।’’

আরও পড়ুন: আইসোলেশনেই তো ছিল, তার পরেও হেনস্থা কেন? প্রশ্ন করোনা আক্রান্ত তরুণীর পরিবারের​

ওই আবাসনেই বসবাসকারী অন্য এক পুলিশকর্তা বলেন, ‘‘বিষয়টি আগেই নজরে এসেছে। আমরা জানিয়েছি কয়েক জনকে, যাতে ওই আইপিএসের ছেলে ঘরেই থাকেন।’’ আনন্দবাজার ডিজিটালের তরফে ওই পুলিশকর্তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়েছিল। তবে তাঁর সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে তাঁর ঘনিষ্ঠ অন্য এক আইপিএস অফিসার অবশ্য দাবি করেছেন, ‘‘ছেলেটি বাড়িতেই ছিল। অযথা আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন আবাসনের কিছু বাসিন্দা।’’

আরও পড়ুন: খুব সতর্ক থাকো কলকাতা, সুইৎজারল্যান্ডে আমরা কিন্তু খুব বিপদে আছি

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন