• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘ইভিএম হঠাও, ব্যালট ফেরাও’, দলকে জাগাতে নতুন আহ্বান মমতার

Mamata
নাবন্নে সাংবাদিকদের মুখোমুখি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। —নিজস্ব চিত্র

এ বার আর শুধু অভিযোগ নয়, ইভিএম নিয়ে আন্দোলনের ঘোষণা করে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘গণতন্ত্র বাঁচাও ব্যালট ফেরাও’, ‘মেশিন চাই না ব্যালট চাই’- এর মতো স্লোগানের মাধ্যমে সারা দেশে আন্দোলন সংগঠিত করবে তৃণমূল। সোমবার নবান্নে এই ঘোষণা করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাধারণ মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে এবং আগামী ২১ জুলাই তৃণমূলের শহিদ দিবসকে সামনে রেখে রাজ্য জুড়ে ‘জনসংযোগ যাত্রা’র নতুন কর্মসূচিও ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

এ বারের লোকসভা ভোটের ফল বেরনোর আগে থেকেই ইভিএম-এ কারচুপির অভিযোগ করে আসছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটগণনার পরেও সেই অভিযোগ থেকে সরেননি। এ বার তাতে আরও গতি আনতে আন্দোলনের কর্মসূচি নিল তৃণমূল। নবান্নে তিনি বলেন, ‘‘গণতন্ত্র বাঁচাও, ব্যালট ফিরিয়ে দাও— এই আন্দোলন বাংলা থেকে শুরু হবে। গোটা দেশে ছড়িয়ে দেওয়া হবে।’’ ভোটগ্রহণে প্রচুর ইভিএম খারাপ, ইভিএমের সঙ্গে ভিভিপ্যাটের গণনা মেলানো নিয়েও উষ্মা প্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বলেন, ‘‘মাত্র দু’শতাংশ ভিভিপ্যাট গোনা হয়েছে। বাকি ৯৮ শতাংশ যে আগে থেকে প্রোগ্রামিং করা ছিল না, তা কে বলতে পারে। আবার ভোটে যে সব ইভিএম খারাপ হয়েছিল, সেগুলি পাল্টানো হয়েছিল। কিন্তু সেগুলিতে মক পোল করে ঠিকঠাক চেক করা হয়েছিল কি না, তা জানা নেই। ওইগুলিতেও আগে থেকে প্রোগ্রামিং করে রাখা হতে পারে।’’

লোকসভা ভোটের নিরিখে এ বার ১২০টিরও বেশি বিধানসভা আসনে হার হয়েছে তৃণমূলের। কিন্তু তৃণমূল নেত্রী এ দিন বলেন, ‘‘ফলাফলকে এই ভাবে বিচার করা উচিত নয়। লোকসভা, বিধানসভা, পুরসভা, পঞ্চায়েত— প্রতিটি ভোটই আলাদা সমীকরণে হয়।’’ লোকসভা ভোটের হিসেব ধরলেও রাজ্যে এখনও স্পষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে তৃণমূলের। সিপিএমের ভোট বিজেপিতে স্থানান্তর হওয়ার জন্য তৃণমূলের এই ফল বলেও এ দিন ফের মন্তব্য করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা।

আরও পডু়ন: রদবদলের মুখে রাজ্য বিজেপি, দেবশ্রী-লকেটকে অব্যাহতির সম্ভাবনা, উত্তরসূরি নিয়ে জল্পনা

২১ জুলাই শহিদ দিবসকে মাথায় রেখে জেলায় জেলায় ‘জনসংযোগ যাত্রা’ করবে তৃণমূল। নেতৃত্বে থাকবেন সংশ্লিষ্ট এলাকার সাংসদ-বিধায়কেরা। ২১ জুলাই পর্যন্ত এই কর্মসূচি চলবে। জেলা সভাপতি এবং জনপ্রতিনিধিরা মিলে এই জনযোগ যাত্রার রুট ঠিক করবেন বলে নির্দিষ্ট করে দিয়েছেন দলনেত্রী।

সংবাদমাধ্যমের একাংশকেও এ দিন কাঠগড়ায় তুলেছেন তৃণমূল নেত্রী। নবান্ন থেকে তাঁর অভিযোগ, বিজেপির বানানো খবর বাংলার সংবাদমাধ্যমগুলি ছেপেছে। মমতা বলেন, ‘‘বিজেপি পুরো ফেক নিউজ তৈরি করে সারা দেশে প্রচার করছে, বাংলা গণতন্ত্র নেই। বাংলায় কেউ রাস্তায় বেরোতে পারেন না। সন্ত্রাস চলে। বাংলার সংবাদমাধ্যমও সেই খবর করছে। এটা বাংলার লজ্জা। বাংলার মিডিয়ার দায়িত্ব এই ফেক নিউজ প্রচার না করা।’’

আরও পুড়ন: ফের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, এ বার পূর্ণ মন্ত্রী মর্যাদার

ভোটের পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে মাঝে মধ্যেই অশান্তি ছড়াচ্ছে। সেই বিশৃঙ্খলার দায় বিজেপির ঘাড়ে চাপাতে চেয়েছেন মমতা। তিনি বলেন, ‘‘সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন তো পায়নি। মাত্র ১৮টা পেয়েছে। সেটাও কৃত্রিম। হারার ভয় পাচ্ছে। তাই জোর করে পার্টি অফিস দখল করছে, বাইক বাহিনী দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।’’

কলকাতায় অমিত শাহের রোড শো-কে ঘিরে সরগরম হয়ে উঠেছিল রাজ্য রাজনীতি। ভাঙা পড়ে বিদ্যাসাগরের মূর্তি। ওই ঘটনায় বিজেপি-তৃণমূল একে অন্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে। এ দিন নবান্নে দাঁড়িয়ে মমতা বলেন, আগামী ১১ জুন ওই জায়গায় একটি মূর্তি প্রাথমিক ভাবে বসানো হবে। একটি ব্রোঞ্জের মূর্তি বানাতে দেওয়া হয়েছে। ওখানে বিদ্যাসাগরের ব্রোঞ্জ মূর্তি বসানো হবে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন