করলার রস নিয়ে বেরোলো তৃণমূল
তুফানগঞ্জ তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব এবং কর্মীদের অভিযোগ করলার রস তৈরি থাকলেও বিরোধীদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। 
Bitter Mellon

প্রতীকী ছবি।

সোমবার কোচবিহার তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি নয়া নিদান দিয়েছিলেন বিরোধী দলের কর্মী এবং প্রার্থীদের মাঠে-ঘাটে দেখলেই তাদের করলার জুস খাওয়ানোর। সেই নির্দেশ মতো মঙ্গলবার ময়দানে নামলেন তুফানগঞ্জ মহকুমার তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব সহ কর্মীরা। এ দিন কর্মীরা বিভিন্ন বাজারে ঘুরে করলা সংগ্রহ করেন এবং তার রস নিয়ে ময়দানে নামেন। তুফানগঞ্জ তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব এবং কর্মীদের অভিযোগ করলার রস তৈরি থাকলেও বিরোধীদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। 

সোমবার তুফানগঞ্জের  এক সাংগঠনিক সভায় রবীন্দ্রনাথ ঘোষ কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি মোহন শর্মাকে পাশে বসিয়ে উপস্থিত ব্লক সভাপতি ও অঞ্চল সভাপতিদের নিদান দেন যখনই মাঠে-ঘাটে বিরোধী দল বিশেষ করে বিজেপির কর্মী এবং প্রার্থীদের দেখা যাবে তাঁদের যেন অবশ্যই করলার রস পান করানো হয়। তিনি এও বলেন বাড়িতে যখন বিরোধীরা ভোট প্রচারে যাবে মা বোনেরা যাতে অবশ্যই তাঁদের এক কাপ করে করলার রস পান করান। পূর্বেও রবীন্দ্রনাথ ঘোষের এ রকম অনেক ঘটনা রয়েছে। কখনও ব্যাঙ্ককর্মীকে গালিগালাজ করা অথবা ভোটের দিন ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে গিয়ে বিরোধী কর্মীদের থাপ্পর মারার মতো ঘটনা ঘটিয়ে উনি শিরোনামে এসেছেন। 

আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপির সহ আহ্বায়ক উৎপল দাস বলেন, ‘‘করলা জুসের নামে  কোনও একটা অভিসন্ধি অবশ্যই আছে তাঁদের। প্রচারে বেরোনোর সময় তৃণমূল করলার জুসের নামে যে কোনো প্রস্তুতি গ্রহণ করুক না কেন বিজেপি কর্মীরা তার মোকাবেলার জন্য সম্পূর্ণ ভাবে তৈরি। ওদের সাথে ভোট প্রচারের ময়দানে দেখা হবে।’’