• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সুপ্রিম কোর্টের শুনানির সময় বাথরুমে ফ্লাশের শব্দ শুনল গোটা বিশ্ব

US supreme court
মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি।

করোনাভাইরাসের জেরে লকডাউন গোটা আমেরিকা। এর মাঝেই মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে পরীক্ষামূলক ভাবে শুরু হয়েছে টেলিকনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে শুনানি। কিন্তু সেখানে এমন অনভিপ্রেত শব্দ শোনা গেল, যা আশা করেননি কেউ। টেলি কনফারেন্সিংয়ে শুনানির সময় বাথরুমে ফ্ল্যাশের শব্দ শোনা গিয়েছে বলে দাবি করছেন অনেকে।

ওয়ার্ক ফ্রম হোমের সময় কী কী সমস্যা হতে পারে, তার বেশ কিছু মজার অথচ অস্বস্তিকর পরিস্থিতির ভিডিয়ো সামনে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে। কিন্তু তা বলে এমন পরিস্থিতি সামনে আসবে, তা মনে হয় কেউ ভাবেননি। মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে একটি মামলার শুনানি চলছিল টেলিকনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে। সেখানে লিবারল জাস্টিস এলেনা কাগান, অটর্নি জেনারেল রোমান মার্টিনেজকে প্রশ্ন করছিলেন।

সবই ঠিকঠাক ছিল, এই প্রশ্নোত্তর পর্ব কেবল চ্যানেল সি-স্প্যান ও অন্যান্য মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রসারণ হচ্ছিল। সেখানেই নেটাগরিকরা খুঁজে বের করেন এক অপ্রত্যাশিত শব্দ, শোনা যায় টয়লেট ফ্লাশের আওয়াজ। সঙ্গে সঙ্গে সেই অডিয়ো ক্লিপটি ভাইরাল হয়ে যায়।

আরও পড়ুন: করোনার আতঙ্কের মাঝে ৩৫ বছর বয়সী অর্থমন্ত্রীকে দেখে ভরসা পাচ্ছেন দেশবাসী

আরও পড়ুন: এ বার করোনার টিকা আবিষ্কার? ইতালির বিজ্ঞানীদের দাবি ঘিরে আশার আলো

মার্টিনেজ পরে এক ইমেলে দাবি করেন তাঁর তরফে এমন কোনও শব্দ হয়নি। আর এলেনার তরফে এ বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। এখন নেটাগরিকরা প্রশ্ন তুলেছেন, তাহলে কি এলেনা ফোনের মাধ্যমে এই শুনানির সময় বাথরুমে যাতায়াত করছিলেন?

এই অডিয়ো ঘিরে বিতর্ক:

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানা ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের সঙ্গে। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা, তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি প্রকাশযোগ্য বলে বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন