সিংহের মুখে ছুঁড়ে মারা হচ্ছে কেক। সম্প্রতি এমনই একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর এভাবে একটি সিংহকে হেনস্থার প্রতিবাদে নিন্দার ঝড় উঠেছে।

ড্যানিয়েল স্নাইডার নামে এক এক ব্লগার ৫ জুন একটি ভিডিয়ো টুইট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে একটি পোষা সিংহের মুখে জন্মদিনের গোটা একটি কেক রীতিমতো ছুঁড়ে মারছেন এক ব্যক্তি। ওই ব্যক্তি ও তার সঙ্গীরা পোজ দিয়ে সেই ছবিও তুলছেন। কেক মাখানোয় সিংহটি তার বিরক্তি প্রকাশ করছে। বার বার তার পা দিয়ে মুখে লেগে থাকা কেক পরিষ্কার করছে।

জানা গিয়েছে ওই সিংহটি ব্লেন্ড ব্রিফকানি নামে এক ব্যক্তির পোষা। সিংহের জন্মদিন উপলক্ষ্যেই এই পার্টির আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই সিংহকে কেক মাখানো হয়।

 

ব্লগার ড্যানিয়েল স্নাইডার জানিয়েছেন, নিজের পরিচয় গোপন রাখার শর্তে তাঁকে এক পরিচিত এই ভিডিয়োটি পাঠিয়েছেন। ভিডিয়োটি প্রায় ৫ হাজার রিটুইট হয়েছে। সেই সঙ্গে শুরু হয়েছে সমালোচনা। এক রকম চাপে পড়েইপাল্টা সাফাই দেওয়ার চেষ্টা করেছেন ব্রিফকানি। সিংহটির নাম ‘লিও’। লিও তাঁর সব থেকে ভাল বন্ধু বলে দাবি করেছেন ওই ব্যক্তি। সে লিওকে হেনস্থা করার জন্য এই কাজ করেননি বলে দাবি করেছে। এমনকি তিনি নাকি পশুদের জন্য একটি সংস্থাও চালান।তিনি স্বীকারও করছেন এভাবে লিওর মুখে কেক ছুঁড়ে মারা ঠিক হয়নি।

আরও পড়ুন : নজরদারি ক্যামেরায় ও কার ছবি! দেখে চমকে গেলেন মহিলা

আরও পড়ুন : পাকিস্তানের জার্সিতে ‘বিরাট’!

লিওকে জঙ্গলে অনাথ, অসুস্থ অবস্থায় খুঁজে পান বলে জানিয়েছেন ব্রিফকানি। তাকে উদ্ধার করে এনে আশ্রয়, খাদ্য, চিকিত্সা সব কিছুর ব্যবস্থা করেন। একটা সিংহের ভাল থাকার জন্য যা দরকার সব দিয়েছে বলে দাবি করেছেন ব্রিফকানি। এত সবের পরেও কেক মাখানোর জন্য সমালোচনা কমেনি।