• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জাপানে অ্যাপ, ঘরে বসে গ্যালারির আবহ

App in phone
অভিনব: মোবাইল অ্যাপে মাঠের সঙ্গে যোগাযোগ থাকবে সমর্থকদের।

দক্ষিণ কোরিয়ায় কে-লিগ, জার্মানিতে বুন্দেশলিগা ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। স্পেনের লা লিগায় লিয়োনেল মেসিদের মাঠে ফেরার কথা ৮ জুন থেকে। করোনা আতঙ্কের মধ্যে গোটা বিশ্বে ধীরে ধীরে খেলাধুলো শুরু হলেও সংক্রমণ রুখতে স্টেডিয়ামে দর্শকদের প্রবেশের অনুমতি নেই।

পরিস্থিতি সামলাতে কোনও কোনও স্টেডিয়ামের পাবলিক অ্যাড্রেস সিস্টেমে ম্যাচের সময় বাজানো হচ্ছে রেকর্ড করে রাখা দর্শকদের চিৎকার। কোথাও আবার গ্যালারির চেয়ারে সাজিয়ে রাখা হচ্ছে ম্যানিকুইন (পুতুল)। কিন্তু তাতেও দর্শকশূন্য  স্টেডিয়ামে খেলার হতাশা দূর হচ্ছে না খেলোয়াড়দের। ইউনিয়ন বার্লিনের বিরুদ্ধে বুন্দেশলিগার ম্যাচের পরে বায়ার্ন মিউনিখের তারকা থোমাস মুলার বলেছিলেন, ‘‘স্টেডিয়ামের পরিবেশ দেখে মনে হচ্ছে যেন বৃদ্ধদের ফুটবলে অংশ নিচ্ছি আমরা।’’

এই সমস্যার সমাধানে অভিনব উদ্যোগ নিল জাপানের একটি সংস্থা। বিশেষ মোবাইল ফোন অ্যাপের (রিমোট চিয়ারার) মাধ্যমে স্টেডিয়ামের সেই চেনা আবহ ফেরানোর পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করে দিল তাঁরা। টেলিভিশন বা অনলাইনে খেলা দেখার সময় দর্শকদের প্রতিক্রিয়া পৌঁছে যাবে খেলোয়াড়দের কাছে।

কী ভাবে কাজ করবে এই অ্যাপ?

ম্যাচের সময় স্টেডিয়ামের বিভিন্ন অংশে এবং দর্শকাসনে স্পিকার রাখা থাকবে। অ্যাপে একাধিক বোতাম রয়েছে। কোনওটা উন্মাদনা প্রকাশের জন্য। আবার কোনও বোতাম রয়েছে প্রিয়  দলের জয় কামনা করে প্রার্থনা করার জন্য। আবার ক্ষোভ উগরে দেওয়ার জন্যও আলাদা বোতাম রয়েছে। ক্রীড়াপ্রেমীরা তাঁদের ইচ্ছে মতো বোতাম স্পর্শ করে নিজেদের মনোভাব জানাতে পারবেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন