• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘হামলায়’ অভিযুক্ত বিজেপি

BJP
 দিকে, ডানকুনি টোল প্লাজ়ায় পুলিশের উপরে চড়াও বিজেপি কর্মীরা। ডান দিকে, ধুলাগড়ি টোল প্লাজ়ার কাছে এক বিক্ষোভকারীকে লাথি পুলিশকর্মীর। ছবি: : দীপঙ্কর দে ও সুব্রত জানা

নবান্ন অভিযান সেরে ফেরার সময়ে টোল প্লাজ়ায় তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ উঠল বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার দুপুরে পূর্ব বর্ধমানে দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে পালশিট টোল প্লাজ়ায় এই ঘটনায় তিন জন কর্মী আহত হন। ছবি তুলতে গিয়ে এক চিত্র সাংবাদিকও জখম হন বলে অভিযোগ। বিজেপির পাল্টা দাবি, তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের লোকজন তাঁদের কর্মীদের কটূক্তি ও বাঁশ-লাঠি নিয়ে তাড়া করেছে।

ঘটনার সূত্রপাত এ দিন সকালে। বিজেপির অভিযোগ, পশ্চিম বর্ধমান থেকে কর্মীদের নিয়ে বাস ও গাড়ি নবান্ন অভিযানে যাওয়ার সময়ে ওই টোল প্লাজ়ার লেনে একটি ট্রাক আড়াআড়ি ভাবে রেখে দেওয়া হয়েছিল। তাঁদের গাড়িগুলি যাতে সহজে যেতে না পারে, সে জন্য তৃণমূলের মদতে টোল প্লাজ়ার কিছু কর্মী এই কাজ করেছিলেন বলে দাবি পশ্চিম বর্ধমানের বিজেপি নেতা কেশব পোদ্দারের। ক্ষোভ-বিক্ষোভ শুরু হলে ট্রাকটি সরানো হয়।

অভিযোগ, কর্মসূচি সেরে ফেরার সময়ে বিজেপি কর্মীরা টোল প্লাজ়ার কর্মীদের উপরে চড়াও হন। টোল প্লাজ়ার কর্মী প্রেমাংশু সাউয়ের অভিযোগ, ‘‘স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে বাস আটকানো হতেই লোকজন নেমে মারধর শুরু করে।’’ মেমারি থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিজেপি কর্মীরা পালিয়ে যান। পুলিশ জানায়, একটি বাস ও একটি যাত্রিবাহী গাড়ি আটক করা হয়েছে।

রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূলের জেলা সভাপতি (পূর্ব বর্ধমান) স্বপন দেবনাথের অভিযোগ, “বিশৃঙ্খলা করে রাজ্যে অরাজকতা তৈরি করতে চাইছে বিজেপি। বিজেপির পশ্চিম বর্ধমান জেলা সভাপতি লক্ষ্মণ ঘোড়ুই এই ঘটনায় কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন