• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সোমবার থেকে গ্রিন জোনে জেলার মধ্যে ২০ যাত্রী নিয়ে চলবে বাস: মুখ্যমন্ত্রী

Mamata
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: ফেসবুক থেকে

লকডাউন জারি রেখেও গ্রিন জোন এলাকায় আরও কিছু ছাড় ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। বুধবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, জেলার মধ্যে (এক জেলা থেকে অন্য জেলা নয়) ২০ জন যাত্রী নিয়ে বাস চালানো যাবে। সোমবার থেকে এই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

এ ছাড়া গ্রিন জোনে কিছু দোকানপাট খোলাতেও ছাড়ের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, গ্রিন জোন এলাকায় স্বতন্ত্র ভাবে যে দোকানগুলি আছে, সেগুলি খোলা যাবে। তার মধ্যে রয়েছে লন্ড্রি, মোবাইল রিচার্জের দোকান, ইলেকট্রিকের দোকান, চায়ের দোকান, পান-বিড়ির দোকান খোলা যাবে। তবে কোনও দোকানেই ভিড় করা যাবে না এবং মার্কেট কমপ্লেক্সের মধ্যে কোনও দোকান খোলা যাবে না। এখনই হকার্স কর্নার, হকার্স মার্কেট বা ফুটপাতের দোকানগুলি চালু করার কোনও প্রশ্নই নেই। কেন্দ্র সেলুন খোলার অনুমতি দেয়নি। তাই সেলুন বা বিউটি পার্লার খোলা যাবে না, জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

মঙ্গলবার টিকিয়াপাড়ায় লকডাউনের নিয়ম মানতে বলায় পুলিশকে আক্রমণ করেন এলাকাবাসী। কিন্তু সেই ঘটনা নিয়ে বিজেপি রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ তুলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘কোনও ঘটনা ঘটলে তার মধ্যে ধর্ম খুঁজতে যাওয়া উচিত নয়। অপরাধ অপরাধই। পুলিশকে বলেছি কড়া ব্যবস্থা নিতে।’’ বিজেপির উদ্দেশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘এটা রাজনীতি করার সময় নয়। মানুষকে এই সময় উস্কানি দেবেন না। বরং মানুষের পাশে থাকুন।’’ 

লকডাউনের  জেরে নানা সমস্যার মুখে পড়েছেন রাজ্যবাসী। সেই বিষয়টি উল্লেখ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘আপনার অনেক কষ্ট করেছেন। আরও কিছু দিন কষ্ট করুন। এই ভাইরাসকে সবাই মিলেই প্রতিরোধ করতে হবে।’’ 

যা বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়: 

• হাসপাতালে মারা যাওয়ার পরেই তো সঙ্গে সঙ্গে ঘোষণা করা যায় না, চার ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হয় 

• হাসপাতালে ডেডবডি পড়ে আছে বলে একটা ভিডিয়ো ছড়ানো হয়েছে 

• সোশ্যাল মিডিয়ায় যাঁরা শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষ এ সবে কান দেবেন না 

• আর মারা গেলেই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং করছে 

• ওরা শুধু খুজে বেড়াচ্ছে, কোথায় কে মারা যাচ্ছে 

• যদি কেউ খাবার না পান, আমরা ব্যবস্থা করব 

• যদি বিজেপির বন্ধুরা মনে করেন, কারও কোনও উপসর্গ আছে, আমাকে জানাবেন, আমি ভর্তির ব্যবস্থা করবে 

• একটু দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিন 

• দিল্লিতে কত লোক মারা গিয়েছে এনপিআর, সিএএ নিয়ে আন্দোলন করতে গিয়ে? 

• ক্রাইম ইজ ক্রাইম, ক্রিমিনাল অফেন্স 

• কোনও ঘটনা ঘটলে তার মধ্যে ধর্ম খুঁজতে যাওয়া উচিত নয় 

• টিকিয়াপাড়ায় একটি ঘটনা ঘটেছে, পুলিশকে বলেছি কড়া ব্যবস্থা নিতে 

• নতুন পরিস্থিতিতে সবাইকেই অনেক কিছু শিখতে হচ্ছে 

• পুলিশ সারাক্ষণ কাজ করছে, একটু ভুল হতেই পারে 

• খবর পাওয়ার পরেই আমি পুলিশকে খবর পাঠিয়েছি, সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ গিয়ে ওই সাংবাদিককে বাঙুর হাসপাতালে ভর্তি করেছে 

• একজন সাংবাদিক মারা গিয়েছে, যদি তাঁর পরিবার চায়, তাহলে তাঁর পরিবারকেও ১০ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে 

• তাঁদের বিমার টাকার চেক দেওয়া হয়েছে 

• আমাদের দু’জন চিকিৎসক মারা গিয়েছে, খুবই দুঃখের 

• ১ লক্ষ ৫২ হাজার কোটি টাকার ৬ মাসের পরিকল্পনা করেছি আমরা 

• নির্বাচনের ঘণ্টা যখন বাজবে, মানুষই আপনাদের উত্তর দেবে  

• কোভিড রোগীদের পাশে থাকুন, পুলিশের পাশে থাকুন, সর্বোপরি মানুষের পাশে থাকুন 

• সবাইকে বলব, সবাই নামুন, রাস্তায় ঝাঁট দিন, রাস্তাঘাট পরিষ্কার রাখুন 

• তুমি টিকিয়াপাড়া নিয়ে সারা দেশে কুৎসা করে বেড়াচ্ছ 

• একটা ঘটনা ঘটেছে, সেটা পুলিশ দেখবে 

• আমরা যে কাজটা চ্যালেঞ্জ নিয়ে করছি

• দয়া করে বাংলাকে ধ্বংস করবেন না 

• মনে রাখবেন, আমরা কিন্তু ১ তারিখে মাইনে যেখান থেকেই হোক দেওয়ার চেষ্টা করছি 

• অনেক সরকার মাইনে দিতে পারব না, কেন্দ্রীয় সরকারও বলেছে ডিএ দিতে পারবে না 

• মানুষকে দয়া করে ক্ষেপিয়ে তুলবেন না, বিভ্রান্ত হয়, এমন কাজ করবেন না 

• সেগুলো ডিসপোজ করার জন্য আদালতের অনুমতি নিতে হয় 

• বাঙুরে অনেক আনআইডেন্টিফায়েড বডি রয়েছে, সব হাসপাতালেই থাকে 

• সেটা বাঙুর হাসপাতাল দেখবে, তুমি কি কাঁধে করে নিয়ে যাবে? 

• বাঙুরে ডেড বডি কেন নিয়ে যাওয়া হল, প্রশ্ন তোলা হচ্ছে 

• ওদের এ, বি, সি, ডি জোন 

• কাজ তো কিছুই জানেন না 

• কিন্তু অন্য় রাজ্য তাহলে আমাদের  দিকে আঙুল তুলবে কেন? 

• আমরা বলেছি, আমরা সবার পাশে আছি 

• গুজরাতে, মহারাষ্ট্রে, মধ্যপ্রদেশে আমরা সরকার চালাই না, আমরা তো কোনও রাজ্যের বিরুদ্ধে বলিনি 

• কিছু কিছু মানুষ রাজ্যকে বদনাম করার চেষ্টা করছেন 

• কী করে ভাবলেন যে সব কোভিড হাসপাতাল খোলা হয়েছে, সেখানে সব চিকিৎসক, সব নার্স এই অল্প দিনেই সব জেনে যাবেন 

• কিন্তু আমি বলব, আপনারা রুটিন কেস নিয়ে রাজনীতি করবেন না 

• কেউ কেউ রাজনীতি করছে, শুধু খুঁত খুঁজে বেড়াচ্ছে 

• আমরা দিন রাত কঠোর পরিশ্রম করছি 

• মৃদু সংক্রমণের ক্ষেত্রে বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করা সম্ভব 

• কিন্তু এঁরা সবাই তো আমাদেরই লোকজন, এটা একটা রোগ, কোনও অচ্ছুত রোগ নয়। এটা একটা ভাইরাস 

• নার্সরা বাড়িতে গেলে তাঁকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না, চিকিৎসকদেরও বলা হচ্ছে করোনার চিকিৎসা করে এসেছেন 

• এই সময় মানুষের পাশে থেকে সাহায্য করা দরকার 

• বিজেপি অনেক কিছু নিয়েই রাজনীতি করছে, এটা রাজনীতি করার সময় নয়

• ছিল একটা ল্যাব, এখন ১৪টা ল্যাব 

• আমাদের ল্যাব কম, কর্মী সংখ্যা কম 

• মৃতু সংক্রমণ হলে বাড়িতে রাখা হবে 

• কলকাতায় এখনও কোভিড-১৯ এর জন্য ৭৯০ বেড রয়েছে 

• আমরা চাইছি, প্রাইভেট নার্সিং হোমগুলো সাহায্য করুক 

• কোনও সামাজিক প্রকল্প চলবে না 

• সাধারণ মানুষকে বলব, আপনারা অনেক সাহায্য করেছেন, আর একটু সহযোগিতা করুন 

• কেন্দ্র অনুমতি দেয়নি, তাই  এখনই সেলুন, বিউটি পার্লার খোলা যাবে না 

• কোন এলাকায় কোন দোকান খোলা যাবে, কোনগুলি নয়, সেটা স্থানীয় প্রশাসন ঠিক করবে 

• তবে ২০ জনের বেশি যাত্রী নেওয়া যাবে না 

• সোমবার থেকে গ্রিন জোনে আন্তঃজেলা বাস চালু হচ্ছে  

• গ্রিন জোনে আয়রন অ্যান্ড স্টিল ফ্যাক্টরি, নির্মাণ শিল্প আমরা চালু করার অনুমতি দিচ্ছি

• গ্রিন জোনে কারখানা খোলা যাবে 

• হকার্স মার্কেট, হকার্স কর্নার খুলবে না, ফুটপাতে দোকানও খোলা যাবে না 

• পানের দোকান থেকে পান-সিগারেট কিনে নিয়ে গিয়ে বাড়িতে গিয়ে খাবেন 

• চায়ের দোকানে বসে আড্ডা মারা যাবে না 

• স্টেশনারি ও বইয়ের দোকান, ইলেকট্রনিক্সের দোকান, মোবাইল রিচার্জ, লন্ড্রি, চা ও পানের দোকান 

• কিন্তু মার্কেট কমপ্লেক্সের মধ্যে হলে খোলা যাবে না 

• যেখানে একটাই দোকান, সেগুলি সোমবার থেকে খোলা যাবে 

• পাশাপাশি বসে, পাশাপাশি দাঁড়িয়ে যেন আমরা কিছু না করি 

• লকডাউন মেনে, সুরক্ষার নিয়ম মেনে আপনারা শুরু করুন 

• চিকিৎসকের কাছে আবেদন, নিজেরা সাবধানতা নিয়ে চেম্বার খোলার চেষ্টা করুন 

• ৫১টা বেসরকারি হাসপাতাল আমরা সরকারি ভাবে নিয়েছি

• বেসরকারি হাসপাতালগুলি যেন চালু থাকে, তারা যেন কোনও রোগীকে ফেরত না দেয় 

• সবাইকে মাস্ক পরে থাকতে হবে 

• আজ বিকেলেই তাঁরা বাসে উঠবেন 

• রাজস্থানের কোটা থেকে প্রায় ২৫০০ পড়ুয়াকে রাজ্যে ফেরানো হচ্ছে

• বিমান, ট্রেন বন্ধ করার জন্য বলেছিলাম 

• সারা দেশে লকডাউন ঘোষণার আগেই আমরা লকডাউন করেছিলাম 

• আপনারা অনেক কষ্ট করেছেন, আরও কিছু দিন কষ্ট করতে হবে 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন