বর্ষার মরসুমে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির ঘাটতি অব্যাহত। আষাঢ় মাস শেষ হতে চলল। দক্ষিণবঙ্গের মানুষ এখনও বৃষ্টির জন্যে হাপিত্যেস করেই বসে রয়েছেন। অস্বস্তিকর আবহাওয়া চলছেই। তবে এই গুমোট পরিস্থিতি কাটতে চলেছে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। আলিপুর হাওয়া অফিসের অধিকর্তা গণেশকুমার দাস বলেন, গাঙ্গেয় বঙ্গোপসাগরের উপরে একটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে। তার প্রভাবেই আগামী ২৪ ঘণ্টা ভাল বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।” বৃষ্টি হবে দক্ষিণবঙ্গ জুড়েই।

গণেশবাবু জানিয়েছেন— ঘূর্ণাবর্তের জেরে কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, দুই বর্ধমান, হাওড়া, হুগলি, নদিয়াতে ভালই বৃষ্টি হবে। পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বীরভূমে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পাল্লা দিয়ে বৃষ্টি হবে উত্তরবঙ্গেও। দার্জিলিং, কালিম্পং,আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়িতে ভাল বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

জুন মাসে বৃষ্টির ঘাটতি তো ছিলই, জুলাইের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত সে ভাবে বৃষ্টির দেখা নেই দক্ষিণবঙ্গে। আলিপুর হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, জুলাইয়ের ১ থেকে ৬ তারিখ পর্যন্ত কলকাতায় বৃষ্টির ঘাটতি ৬৬ শতাংশ। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২৭, হাওড়া ৭২, উত্তর ২৪ পরগনায় ৫৮, পশ্চিম মেদিনীপুর ২৯, পূর্ব মেদিনীপুরে ৩৬, পুরুলিয়াতে ৩২ শতাংশ বৃষ্টির ঘাটতি রয়েছে। রাজ্যের অন্যান্য জেলার ছবিও মোটামুটি একই রকম। এ বার ঘূর্ণাবর্তের হাত ধরে কতটা ঘাটতি পূরণ হয়ে সেটাই এখন দেখার। 

আরও পড়ুন: লিটারপিছু প্রায় আড়াই টাকা দাম বাড়ল পেট্রল-ডিজেলের, কলকাতায় দাম...

আরও পড়ুন: শিন্ডে-খড়্গে নন, রাহুলের উত্তরসূরি হোন তরুণ কেউ, মত ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিংহের